বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > কলকাতায় আবার ধরা পড়ল ভুয়ো করোনা পরীক্ষার চক্র
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

কলকাতায় আবার ধরা পড়ল ভুয়ো করোনা পরীক্ষার চক্র

  • মেডিকা হাসপাতালে নাম ভাঁড়িয়ে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার এক যুবক।

কলকাতায় ফের ধরা পড়ল ভুয়ো করোনা পরীক্ষার চক্র। এবার মেডিকা হাসপাতালে নাম ভাঁড়িয়ে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার এক যুবক। সৌমিত্র চৌধুরী (৪০) নামে ওই যুবক চাঞ্চল্যকরভাবে জানিয়েছেন, অন্তত ২০০ – ৩০০ জনের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করেছেন তিনি। 

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি মেডিকা হাসপাতালের তরফে এক অভিযোগে পুলিশকে জানানো হয়, কেউ বা কারা হাসপাতালের নাম ভাঁড়িয়ে করোনা পরীক্ষা করছে। এর পরই তদন্তে নামে পুলিশ। প্রতারিতদের কাছ থেকে মেলে একটি ফোন নম্বর। জানা যায়, সেই ফোন নম্বর থেকেই হোয়াটসঅ্যাপে যোগাযোগ করে চলছিল প্রতারণা। সেখানে নিজেকে মেডিকা হাসপাতালের কর্মী বলে পরিচয় দিত সৌমিত্র চৌধুরী নামে ওই যুবক। 

ঘটনার তদন্তে নেমে ফোন নম্বরের সূত্র ধরে সৌমিত্র চৌধুরীর হদিশ পায় পূর্ব যাদবপুর থানার পুলিশ। জেরায় সে পুলিশকে জানায়, অন্তত ২০০ জনের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করেছে সে। এর পর পরিচিত পরীক্ষাগার থেকে পরীক্ষা করিয়ে তার রিপোর্টও দিয়েছে। প্রতিটি পরীক্ষা করার জন্য ৩,৬০০ টাকা করে নিতেন ওই ব্যক্তি। 

সোমবার ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করার পর নিয়ে আসা হয় থানায়। তার পর তার কাণ্ড জেনে আর পুলিশ হেফাজতে নেওয়ার সাহস পাননি আধিকারিকরা। সংক্রমণের ভয়ে তাকে জেল হেফাজতে চালান করা হয়েছে। জীবাণুমুক্ত করা হয়েছে পূর্ব যাদবপুর থানা। 

বলে রাখি, এবারই প্রথম নয়। গত সপ্তাহে করোনা পরীক্ষার নামে প্রতারণার অভিযোগে ২ ভাই-সহ ৩ জনকে গ্রেফতার করে লালবাজার। 

 

বন্ধ করুন