তপসিয়ায় আক্রান্ত ব্যক্তি। নিজস্ব চিত্র
তপসিয়ায় আক্রান্ত ব্যক্তি। নিজস্ব চিত্র

তলোয়ার নাচাতে নাচাতে এসে মাথায় কোপ, কাকভোরে ভয়ঙ্কর ছিনতাই তপসিয়ায়

আক্রান্তের অভিযোগ, ব্যাগ ছিনিয়ে নিতে বাধা দিতে গেলে তলোয়ার দিয়ে তার মাথায় কোপ মারে এক দুষ্কৃতী।

ফের একবার প্রশ্নের মুখে ফাঁকা সময়ে কলকাতার রাস্তার নিরাপত্তা। কাকভোরে কলকাতায় ভয়ানক ছিনতাইয়ের শিকার হলেন এক ব্যক্তি। খোলা তলোয়ার নাচাতে নাচাতে এসে তার মাথায় কোপ দিল দুষ্কৃতীরা। ঘটনা তপসিয়া এলাকার। স্থানীয় থানায় অভিযোগ দেয়ের করেছেন আক্রান্ত। তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

আক্রান্ত ব্যক্তি জানিয়েছেন, তাঁর বাড়ি দক্ষিণ ২৪ পরগনার লক্ষ্মীকান্তপুরে। ভোর ৫.৩০ মিনিট নাগাদ নাইট ডিউটি সেরে পার্ক সার্কাস কানেকটর ধরে তপসিয়ার দিক থেকে চার নম্বর ব্রিজের দিকে যাচ্ছিলেন তিনি। তখনই তলোয়ার নাচাতে নাচাতে তার দিতে তেড়ে আসে ৩ যুবক। তাদের মুখ ঢাকা ছিল না। ব্যক্তিকে শক্ত করে জড়িয়ে ধরে এক দুষ্কৃতী। অন্য এক জন বলে, ‘যা আছে দিয়ে দে।’। এর পর ওই ব্যক্তির কাছে থাকা ব্যগটি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে তারা।

আক্রান্তের অভিযোগ, ব্যাগ ছিনিয়ে নিতে বাধা দিতে গেলে তলোয়ার দিয়ে তার মাথায় কোপ মারে এক দুষ্কৃতী। মুহূর্তের মধ্যে সংজ্ঞাহীন হয়ে মাটিতে পড়ে যান তিনি। উঠে দেখেন ব্যাগ নিয়ে রাস্তা পেরিয়ে পালাচ্ছে দুষ্কৃতীরা।

ঘটনার পর স্থানীয় ট্রাফিক কিয়স্কে গিয়ে সাহায্য চান তিনি। সেখানে কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ কর্মী তাঁকে তপসিয়া থানায় পাঠান। সেখানে লিখিত অভিযোগ করেন তিনি। এর পর ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। তবে ততক্ষণে চম্পট দিয়েছে দুষ্কৃতীরা। আক্রান্তের দাবি, তাঁকে খুনের চেষ্টা করেছিল দুষ্কৃতীরা।

দিন কয়েক আগেই গভীর রাতে ট্যাংরায় গৃহবধূর সম্ভ্রম বাঁচাতে গিয়ে অ্যাম্বুল্যান্সের চাকায় প্রাণ গিয়েছিল এক বৃদ্ধের। সেই ঘটনার তদন্তে প্রশ্নের মুখে কলকাতা পুলিশের ভূমিকা। এরই মধ্যে ফাঁকা সময় ফের শহরের রাস্তায় আক্রান্ত হলেন এক ব্যক্তি। পর পর ঘটনায় রাত বা ভোরের দিকে কলকাতার রাস্তার নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

বন্ধ করুন