বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > প্রতিমার গয়না বিক্রি করে মিটিয়েছিলেন ধার, অবসাদে আত্মঘাতী প্রৌঢ়
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

প্রতিমার গয়না বিক্রি করে মিটিয়েছিলেন ধার, অবসাদে আত্মঘাতী প্রৌঢ়

  • পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, এই ঘটনার পর থেকেই অবসাদে ভুগতে শুরু করেন দেবপ্রসাদবাবু। নিজের ঘর থেকে খুব বেশি বেরোতেনও না।

ঋণ শোধ করতে প্রতিমার অলঙ্কার বিক্রি করতে হওয়ায় অবসাদে আত্মঘাতী হলেন এক ব্যক্তি। সোমবার কলকাতার গল্ফগ্রিনের বিজয়গড়ে মিলল প্রৌঢ় দেবীপ্রসাদ আইচের (৫২) ঝুলন্ত দেহ। পঞ্চমীতে এই ঘটনায় ভেঙে পড়েছে গোটা পরিবার।

জানা গিয়েছে, বিজয়গড়েই গ্রিলের কারখানা ছিল দেবীপ্রসাদবাবুর। মোটা টাকা ঋণে জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি। টাকা শোধ করতে তাগাদা দিচ্ছিল পাওনাদারেরা। যার জেরে বাধ্য হয়ে বাড়ির প্রতিমার গয়না খুলে বিক্রি করেন তিনি। সেই টাকায় শোধ করেন ঋণ।

পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, এই ঘটনার পর থেকেই অবসাদে ভুগতে শুরু করেন দেবপ্রসাদবাবু। নিজের ঘর থেকে খুব বেশি বেরোতেনও না। রবিবার দীর্ঘক্ষণ তাঁর ঘরের দরজা ভিতর থেকে বন্ধ দেখে ডাকাডাকি শুরু করেন পরিজনরা। বেশ কিছুক্ষণ পরেও সাড়া না পেয়ে দরজা ভেঙে ভিতরে ঢুকে তাঁর ঝুলন্ত দেহ দেখা যায়। দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ।

পরিবারের দাবি, পাওনাদারদের হুমকিতেই এই পরিণতি হয়েছে দেবীপ্রসাদবাবুর। লাগাতার মানসিক নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচতে ইচ্ছা না থাকলেও প্রতিমার গয়না বিক্রি করেন তিনি। তার জেরেই অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন তিনি।

 

বন্ধ করুন