এই সেই অ্যাম্বুল্যান্স
এই সেই অ্যাম্বুল্যান্স

খাস কলকাতায় পুত্রবধূর অপহরণ রুখতে গিয়ে প্রাণ গেল বৃদ্ধের

অ্যাম্বুল্যান্সের সামনে চলে আসেন গোপালবাবু। তখন অ্যাম্বুল্যান্সটি তাঁকে ধাক্কা দিয়ে প্রায় ১০০ মিটার টানতে টানতে নিয়ে চলে যায়।

খাস কলকাতায় বউমার অপহরণ রুখে প্রাণ গেল শ্বশুরের। ঘটনা ট্যাংরার ক্রিস্টফার রোডের। মৃতের নাম গোপাল প্রামাণিক। ঘটনার তদন্তে নেমেছে ট্যাংরা থানার পুলিশ।

নিহতের পরিজনরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাতে বাড়ির কাছেই নিমন্ত্রণ রক্ষা করতে গিয়েছিলেন তাঁরা। রাত ১১.৩০ মিনিট নাগাদ ক্রিস্টফার রোড ধরে বাড়ি ফিরছিলেন তাঁরা। কিছুটা আগে যাচ্ছিলেন গৃহবধূ ও তাঁর শাশুড়ি। পিছন পিছন আসছিলেন গৃহবধূর শ্বশুর ও মামাশ্বশুর।

অভিযোগ, ক্রিস্টফার রোড ধরে এগোনোর সময় গোবিন্দ খটিক রোডের দিক থেকে একটি অ্যাম্বুলেন্স এসে বধূর পাশে দাঁড়ায়। বধূকে টেনে গাড়িতে তোলার চেষ্টা করে তারা। বধূর চিত্কারে সেখানে চলে আসেন শ্বশুর গোপাল প্রামাণিক ও মামাশ্বশুর। জানলা দিয়ে অ্যাম্বুল্যান্স চালকের গলা জড়িয়ে ধরার চেষ্টা করেন তিনি। তখন অ্যাম্বুলেন্স চালক গতি বাড়িয়ে পালানোর চেষ্টা করেন। এর পর অ্যাম্বুল্যান্সের সামনে চলে আসেন গোপালবাবু। তখন অ্যাম্বুল্যান্সটি তাঁকে ধাক্কা দিয়ে প্রায় ১০০ মিটার টানতে টানতে নিয়ে চলে যায়।

ততক্ষণে এলাকায় জড়ো হতে শুরু করেছেন স্থানীয়রা। বৃদ্ধকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষণা করেন চিকিত্সকরা। অভিযোগ, এত কথা সকাল পর্যন্ত জানতই না ট্যাংরা থানার পুলিশ। রাতে হিট অ্যান্ড রানের মামলা দায়ের করে তারা। সকালে মৃতের পরিজনদের থেকে গোটা ঘটনা জেনে কোমর বেঁধে তদন্তে নেমেছেন আধিকারিকরা। তবে ঘটনায় অভিযুক্তরা এখনো অধরা।





বন্ধ করুন