বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ছেলের মটোরসাইকেলের বায়না মেটাতে পকেটমারির গল্প ফাঁদলেন বাবা, ধরিয়ে দিল CCTV
প্রতীকি ছবি (HT_PRINT)
প্রতীকি ছবি (HT_PRINT)

ছেলের মটোরসাইকেলের বায়না মেটাতে পকেটমারির গল্প ফাঁদলেন বাবা, ধরিয়ে দিল CCTV

  • পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার দুপুরে বড়বাজারের এক ব্যবসায়ী পুলিশে অভিযোগ জানান, তাঁর কর্মী সুবোধ সিং টাকা সংগ্রহ করে একটি ব্যাগে করে ফিরছিলেন। ব্যাগে ছিল প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা।

ছেলের দামি মোটরসাইকেলের বায়না মেটাতে গিয়ে মহাজনের টাকা চুরি করে ধরা পড়লেন এক ব্যক্তি। সোমবার কলকাতার বড়বাজারের ঘটনা। অভিযুক্ত সুবোধ সিং নামে ওই কর্মচারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাঁর বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে ২.৫ লক্ষ টাকা।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার দুপুরে বড়বাজারের এক ব্যবসায়ী পুলিশে অভিযোগ জানান, তাঁর কর্মী সুবোধ সিং টাকা সংগ্রহ করে একটি ব্যাগে করে ফিরছিলেন। ব্যাগে ছিল প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা। অফিসে ফিরে তিনি জানান, মল্লিক স্ট্রিটে তাঁর ব্যাগ কেটে টাকা পকেটমারি হয়ে গিয়েছে। ব্যাগটি হাতে নিয়ে পুলিশের আধিকারিকরা বুঝতে পারেন এই কাজ কোনও পকেটমারের নয়। আনাড়ি হাতে কাটা হয়েছে ব্যাগ। এর পর যেখানে ছিনতাই হয়েছে বলে সুবোধ দাবি করেন, সেখানকার সমস্ত সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ পরীক্ষা করা হয়। কিন্তু কোনও পকেটমারির প্রমাণ পাওয়া যায়নি। এর পর সুবোধ যে পথে এসেছিলেন বলে দাবি করেছেন সেই পথে এক একটি সিসিটিভির ফুটেজ পরীক্ষা শুরু হয়। তাতে দেখা যায় রাস্তায় সুবোধ নিজেই ব্যাগ থেকে টাকা বার করে তাঁর এক আত্মীয়ের হাতে তুলে দিচ্ছেন। তার পর ব্যাগ কাটার চেষ্টা করছেন নিজেই।

ঘটনা স্পষ্ট হতে সুবোধের বাড়িতে হানা দেন তদন্তকারীরা। সেখানে উদ্ধার বয় নগদ ২.৫ লক্ষ টাকা। এর পর সুবোধকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন গোয়েন্দারা। জেরায় ধৃত জানিয়েছে, ছেলে দামি মোটরসাইকে কিনে দেওয়ার বায়না করছিল। অত দামি মোটরসাইকেল কিনে দেওয়ার সামর্থ ছিল না তাঁর। তাই মহাজনের টাকা সরিয়ে পকেটমারির গল্প ফাঁদার পরিকল্পনা করেন তিনি।

 

বন্ধ করুন