বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অনেকেরই থাকা, না-থাকা দোদুল্যমান: পার্থ চট্টোপাধ্যায়
শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)
শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)

অনেকেরই থাকা, না-থাকা দোদুল্যমান: পার্থ চট্টোপাধ্যায়

  • মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়া কার কত দৌড় আমাদের দেখা আছে, বললেন মন্ত্রী

তৃণমূলের একাধিক নেতার দলবদলের জল্পনার মধ্যে চাঞ্চল্যকর বয়ান দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। রবিবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি স্বীকার করে নেন, দলের অনেকেরই থাকা, না – থাকা দোদুল্যমান। যা নিয়ে নতুন করে জল্পনা ছড়িয়েছে রাজনৈতিক মহলে। 

তৃণমূলের বেশ কিছু নেতা তাদের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলছেন বলে দীর্ঘদিন দাবি করে আসছে বিজেপি। তার মধ্যে অন্তত হাফ ডজন সাংসদ রয়েছেন বলে দাবি তাদের। এতদিন সেই দাবিকে ভুয়ো বলে উড়িয়ে দিয়েছেন তৃণমূল নেতারা। রবিবার পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মন্তব্যে স্পষ্ট হল, কিছু অন্তত সারবত্তা রয়েছে বিজেপির দাবিতে। 

রবিবার বেহালায় এক সাংবাদিক বৈঠকে এক সাংবাদিক পার্থবাবুকে প্রশ্ন করেন, ‘শোভন চট্টোপাধ্যায় না থাকায় কি দলের কোনও সমস্যা হবে?’

জবাবে তৃণমূলের মহাসচিব বলেন, ‘অনেকেই না থাকা, থাকা দোদুল্যমান। আমাদের অসুবিধা তখনই হবে যখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থাকবেন না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়া কার কত দৌড় আমাদের দেখা আছে। রাজনৈতিকভাবে আমরা শক্তিশালী কারণ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমাদের মাথায় আছেন’।

পার্থবাবুর এদিনের মন্তব্যে একদিক থেকে স্পষ্ট, তৃণমূলে ভাঙনের চাপ পৌঁছেছে মাথা পর্যন্ত। আর সেই চাপ ধরে রাখতে বেগ পেতে হচ্ছে শীর্ষ নেতৃত্বকে। এদিন তিনি জানান, বেহালায় শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ওয়ার্ডের দায়িত্বে রয়েছেন রত্নাই। তিনিই সেখানকার সংগঠন দেখভাল করবেন।  

 

বন্ধ করুন