শুক্রবার সন্ধে ৬.৩০ মিনিটে আমফানের অবস্থান
শুক্রবার সন্ধে ৬.৩০ মিনিটে আমফানের অবস্থান

ঘূর্ণিঝড় আমফানের জেরে ২ দিনে ১৫০ মিমি বৃষ্টি হতে পারে কলকাতায়

  • দক্ষিণবঙ্গে একাধিক জেলায় ব্যাপক বর্ষণের সতর্কতা। 

বঙ্গোপসাগরে তৈরি হচ্ছে ঘূর্ণিঝড় আমফান। এর জেরে আগামী সপ্তাহে দুর্যোগ ঘনাতে পারে পশ্চিমবঙ্গে। ঘূর্ণিঝড়টি কোথায় আঘাত হানবে তা এখনো সুস্পষ্টভাবে জানা না গেলেও পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা প্রবল। তার জেরে ব্যাপক বৃষ্টি হতে পারে উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের একাংশে। 

পূর্বাভাস অনুসারে অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিতে চলেছে ‘আমফান’। যার ফলে দক্ষিণবঙ্গের উপকূলবর্তী ৩ জেলা পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় আমফানের জেরে ১০০ মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টি হতে পারে। হাওড়া, হুগলি, নদিয়া জেলা জুড়ে সম পরিমাণ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। মুর্শিদাবাদ ও পূর্ব বর্ধমান জেলার একাংশে ঝড়ের জেরে প্রবল বর্ষণ হবে। এছাড়া দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাগুলিতেও মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। 

আমফানের জেরে উত্তরবঙ্গের ২ জেলায় প্রভাব পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ারের একাংশে ঘূর্ণিঝড়ের জেরে প্রবল বর্ষণের সম্ভাবনা। যার জেরে উত্তরবঙ্গের কিছু নদীতে বন্যা পরিস্থিতিও তৈরি হতে পারে। শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়িতে মাঝারি বর্ষণের সম্ভাবনা। 

আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস বলছে, সোমবার রাত থেকে আমফানের জেরে উপকূলবর্তী জেলায় বর্ষণ শুরুর সম্ভাবনা রয়েছে। মঙ্গল ও বুধবার নাগাড়ে বৃষ্টি চলবে দক্ষিণবঙ্গে। বৃহস্পতিবার দক্ষিণবঙ্গে পরিষ্কার হবে আকাশ। শুক্রবার রোদ উঠবে উত্তরবঙ্গেও। 

বর্তমানে দক্ষিণ-মধ্য বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে ঝড়টি। অনুমান আগামীকালের মধ্যে সেটি ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নেবে। 

 

বন্ধ করুন