বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Menoka Gambhir: বিদেশ যাওয়ার মামলা প্রত্যাহার করলেন মেনকা গম্ভীর, কেন এমন সিদ্ধান্ত?‌

Menoka Gambhir: বিদেশ যাওয়ার মামলা প্রত্যাহার করলেন মেনকা গম্ভীর, কেন এমন সিদ্ধান্ত?‌

মেনকা গম্ভীর।

১২ সেপ্টেম্বর সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে তাঁকে ইডি তলব করে। তখন তিনি হাজিরা দেন। প্রায় সাত ঘণ্টা ধরে চলে জিজ্ঞাসাবাদ। ওই দিনই কলকাতা হাইকোর্টে ইডি এবং বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অবমাননার মামলা করেন মেনকা গম্ভীর। আদালতের ‘রক্ষাকবচ’ থাকা সত্ত্বেও বিমানবন্দরে কেন তাঁকে আটকানো হল?

বিদেশ যেতে চেয়েছিলেন তিনি। আর তা নিয়েই হয়েছিল মামলা। এই মামলাটি করেছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের শ্যালিকা মেনকা গম্ভীর। আজ, সোমবার মামলাটি প্রত্যাহার করে নেন মেনকা। এই বিষয়ে আদালতে তাঁর আইনজীবী জানান, নতুন করে আবেদন করার জন্যই মামলা প্রত্যাহার করা হয়েছে। তবে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা নতুন করে আবেদন করার অনুমতি দিয়েছেন মেনকা গম্ভীরকে। আগে মেনকার দায়ের করা মামলায় অবকাশকালীন বেঞ্চের বিচারপতি তীর্থঙ্কর ঘোষ কোনও নির্দেশ দেননি। বরং ওই মামলাকে তিনি পাঠিয়ে দেন রেগুলার বেঞ্চে।

কেন বিদেশ যেতে চেয়েছিলেন মেনকা?‌ কলকাতা হাইকোর্টে আবেদন জানিয়ে মেনকা বলেছেন, ব্যাঙ্ককে তাঁর মা অসুস্থ। তাঁর সেখানে যাওয়া প্রয়োজন। পরিবারের বাকি সদস্যরাও ব্যাঙ্ককেই রয়েছেন। তাই তাঁর সেখানে যাওয়া প্রয়োজন বলে হলফনামা দিয়ে দাবি করেছিলেন মেনকা। তবে মেনকার এই আবেদন নিয়ে আপত্তি তোলেন ইডির আইনজীবী ফিরোজ এডুলজি। তিনি আদালতকে জানান, মেনকার নামে ‘লুক আউট’ নোটিশ জারি আছে। তাই তাঁকে দেশের বাইরে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া উচিত হবে না।

ঠিক কী জানা গিয়েছে?‌ মেনকা গম্ভীর ইডি–সিবিআইয়ের জন্য দেশের বাইরে পাড়ি দিতে পারছেন না। সেই কথাই আদালতে তুলে ধরেছেন হলফনামার মাধ্যমে। তখন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি তীর্থঙ্কর ঘোষ এই নিয়ে মেনকাকে মামলা দায়েরের অনুমতি দেন। আগে আদালতের রায়ে বলা হয়েছিল, কেন্দ্রীয় এজেন্সি মেনকাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারে। কিন্তু তাঁর বিরুদ্ধে চরম কোনও পদক্ষেপ করা যাবে না। বিমানবন্দরে তাঁকে দীর্ঘক্ষণ বসিয়ে রাখা এবং ব্যাঙ্কক যেতে না দেওয়া নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে পৃথক মামলা দায়ের করেছিলেন মেনকা।

উল্লেখ্য, ১২ সেপ্টেম্বর সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে তাঁকে ইডি তলব করে। তখন তিনি হাজিরা দেন। প্রায় সাত ঘণ্টা ধরে চলে জিজ্ঞাসাবাদ। ওই দিনই কলকাতা হাইকোর্টে ইডি এবং বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অবমাননার মামলা করেন মেনকা গম্ভীর। আদালতের ‘রক্ষাকবচ’ থাকা সত্ত্বেও বিমানবন্দরে কেন তাঁকে আটকানো হল? ইডি এবং অভিবাসন দফতর আদালত অবমাননা করেছিল বলে তাঁর দাবি। তিনি আবেদন জানান, ব্যাঙ্কক যেতে চান। এবার সেই মামলা প্রত্যাহার করে নিলেন মেনকা গম্ভীর।

বন্ধ করুন