বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ঝড়ে কমল বাস, থমকাল মেট্রো পরিষেবা, বন্ধ শিয়ালদা শাখার ট্রেন চলাচল
প্রতীকি ছবি

ঝড়ে কমল বাস, থমকাল মেট্রো পরিষেবা, বন্ধ শিয়ালদা শাখার ট্রেন চলাচল

  • শনিবার বিকেল ৪.৩০ মিনিট নাগাদ আকাশ কালো করে ঝড় ওঠে কলকাতায়। কিছুক্ষণের মধ্যে নামে প্রবল বৃষ্টি। প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে ঝড়ের সর্বোচ্চ গতি ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার ছিল বলে জানা গিয়েছে। ঝড়ের জেরে কলকাতা ও শহরতলির বিভিন্ন জায়গায় উপড়ে পড়ে গাছ।

শনিবার সন্ধ্যায় তুমুল কালবৈশাখীতে ব্যাপক প্রভাব পড়ল দক্ষিণবঙ্গের জনজীবনে। বিশেষ করে সপ্তাহের শেষ কাজের দিন বাড়ি ফিরতে নাভিশ্বাস উঠছে নিত্যযাত্রীদের। ঝড়বৃষ্টিতে রেল লাইনে গাছ পড়ে বন্ধ হল মেট্রো চলাচল। ওভারহেড বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে বন্ধ হয়ে যায় শিয়ালদা নর্থ ও সাউথ শাখার লোকাল ট্রেনচলাচল।

শনিবার বিকেল ৪.৩০ মিনিট নাগাদ আকাশ কালো করে ঝড় ওঠে কলকাতায়। কিছুক্ষণের মধ্যে নামে প্রবল বৃষ্টি। প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে ঝড়ের সর্বোচ্চ গতি ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার ছিল বলে জানা গিয়েছে। ঝড়ের জেরে কলকাতা ও শহরতলির বিভিন্ন জায়গায় উপড়ে পড়ে গাছ। তেমনই একটি গাছ পড়ে মেট্রোর লাইনের ওপরে। তার জেরে টালিগঞ্জ থেকে নিউ গড়িয়া পর্যন্ত মেট্রো চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। কিছুক্ষণ পর শুরু হয় পরিষেবা।

এদিনের ঝড়বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে শিয়ালদা শাখার ট্রেন চলাচল। এদিন বিকেলে শিয়ালদহ স্টেশনে ঘোষণা করা হয়, ওভারহেট তারে বিদ্যুৎ না থাকায় শিয়ালদা উত্তর ও দক্ষিণ শাখায় ট্রেন চালানো সম্ভব হচ্ছে না। দিনের ব্যস্ত সময় লোকাল ট্রেন পরিষেবা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ব্যাপক ভোগান্তিতে পড়েন নিত্যযাত্রীরা। ভিজেপুড়ে স্টেশনে পৌঁছে আপাতত লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালুর অপেক্ষায় রয়েছেন তাঁরা।

এদিনের ঝড়বৃষ্টিতে কলকাতায় বিভিন্ন রাস্তায় গাছ পড়ে যানবাহনের গতি শ্লথ হয়েছে। কমেছে বাসের সংখ্যা। ফলে বাসের ওপর নির্ভর নিত্যযাত্রীদেরও বাড়ি ফিরতে হচ্ছে বাদুড়ঝোলা হয়ে। এদিনের বৃষ্টিতে গরম থেকে রেহাই পাওয়া গেলেও ভুগতে হয়েছে অনেককেই।

 

বন্ধ করুন