বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > স্বয়ংক্রিয় গেটে কিউআর কোড স্ক্যানার বসাচ্ছে মেট্রো, ভিড় কমাতে নয়া প্রযুক্তি
মেট্রো স্টেশনের স্বয়ংক্রিয় গেটে কিউআর কোড স্ক্যানার বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
মেট্রো স্টেশনের স্বয়ংক্রিয় গেটে কিউআর কোড স্ক্যানার বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

স্বয়ংক্রিয় গেটে কিউআর কোড স্ক্যানার বসাচ্ছে মেট্রো, ভিড় কমাতে নয়া প্রযুক্তি

  • ইস্ট–ওয়েস্ট মেট্রোর সব স্টেশনেও বসবে ওই যন্ত্র। মেট্রো সূত্রের খবর, আগামী কয়েক মাসের মধ্যে এই প্রযুক্তি কার্যকর করা হবে।

করোনাভাইরাস আবহে মেট্রো রেলে টোকেন লুপ্ত হতে চলেছে। সেটা মোটামুটি সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন মেট্রো কর্তৃপক্ষ। এবার মেট্রো স্টেশনের স্বয়ংক্রিয় গেটে কিউআর কোড স্ক্যানার বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। যাতে কাউন্টারে যাত্রীদের আসতে না হয়। পার্ক স্ট্রিট এবং ময়দান স্টেশনে এই কাজ শেষ হয়েছে। বাকি সব স্টেশনগুলির স্বয়ংক্রিয় গেটেই ওই যন্ত্র বসানো হবে। ইস্ট–ওয়েস্ট মেট্রোর সব স্টেশনেও বসবে ওই যন্ত্র। মেট্রো সূত্রের খবর, আগামী কয়েক মাসের মধ্যে এই প্রযুক্তি কার্যকর করা হবে।

মেট্রো সূত্রে খবর, প্রত্যেক স্টেশনে পৃথক কিউআর কোড নির্দিষ্ট করা হচ্ছে। যে মোবাইল থেকে টিকিট কাটা হয়েছে শুধু সেই মোবাইল থেকেই ওই কোড কাজ করবে। যে স্টেশন থেকে একজন যাত্রী ট্রেনে উঠতে চান আর যে স্টেশন তাঁর গন্তব্য করতে চান, মোবাইলে মেট্রোর অ্যাপ থেকে ওই দুই স্টেশন বাছাই করার পরে তাঁকে দূরত্ব অনুযায়ী নির্দিষ্ট ভাড়া দিতে হবে। অনলাইনে সেই ভাড়া কাটলেই সংশ্লিষ্ট যাত্রীর মোবাইলে চলে আসবে নির্দিষ্ট কিউআর কোড। ওই কোড অন্য কাউকে পাঠানো যাবে না। নির্দিষ্ট স্টেশনে গিয়ে প্ল্যাটফর্মের প্রবেশপথে থাকা স্বয়ংক্রিয় গেটে স্ক্যানারের সামনে ওই কিউআর কোড ধরলেই যন্ত্র তা পড়ে নেবে এবং খুলে যাবে গেট।

মেট্রো সূত্রের খবর, দেশের অন্যান্য শহরের মতোই কলকাতা মেট্রোকেও আধুনিক কায়দায় সাজিয়ে তোলার চেষ্টা হচ্ছে। এই বিষয়ে এক আধিকারিক বলেন, ‘মেট্রোয় যাতায়াতের সময়েও অ্যাপের মাধ্যমে টিকিট কাটা যাবে। যাত্রীদের কাউন্টারে আসার প্রয়োজন পড়বে না। এই পদ্ধতিতে কাউন্টারে অপেক্ষা করা অথবা টিকিটের জন্য ছোটাছুটির আর দরকার পড়বে না।’

বন্ধ করুন