বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > KMC: ‘পুরসভার জল নিয়ে ছেলেখেলা চলবে না’ অবৈধভাবে ব্যবহার নিয়ে হুঁশিয়ারি মেয়রের
মেয়র ফিরহাদ হাকিম।

KMC: ‘পুরসভার জল নিয়ে ছেলেখেলা চলবে না’ অবৈধভাবে ব্যবহার নিয়ে হুঁশিয়ারি মেয়রের

  • কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, পুরসভার জল নিয়ে ছেলেখেলা একেবারেই বরদাস্ত করা হবে না। পুরসভার মাসিক অধিবেশনে এ কথা জানান ফিরহাদ হাকিম। এমনকি এই সমস্যার পাকাপাকি সমাধানের জন্য আইন প্রণয়ন করার চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন ফিরহাদ।

পুরসভার জল বেআইনিভাবে ব্যবহার করার অভিযোগ প্রায়ই শোনা যায়। অনেকেই পাইপ লাইনের সাহায্যে কলকাতা পুরসভার ট্যাপের জল যেমন তুলে নেন, তেমনি অনেকেই আবার টুলু পাম্পের সাহায্যে সেই জল ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করে থাকেন। যার ফলে কলকাতা পুরসভার বিভিন্ন এলাকায় জল সংকট দেখা দিচ্ছে। অবৈধভাবে জল ব্যবহার রুখতে আরও কড়া মনোভাব দেখাতে চলেছে কলকাতা পুরসভা।

কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, পুরসভার জল নিয়ে ছেলেখেলা একেবারেই বরদাস্ত করা হবে না। পুরসভার মাসিক অধিবেশনে এ কথা জানান ফিরহাদ হাকিম। এমনকি এই সমস্যার পাকাপাকি সমাধানের জন্য আইন প্রণয়ন করার চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন ফিরহাদ। পাম্প প্রসঙ্গ তুলে পুরসভার মাসিক অধিবেশনে অবৈধভাবে জল অপচয় করার অভিযোগ তুলেছিলেন ১০৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নন্দিতা রায়। তিনি অভিযোগ করেছিলেন, অনেকেই পুরসভার জল পাম্পের সাহায্যে টেনে বাড়ির জলাধারে রেখে ব্যবহার করছেন। এর ফলে সন্তোষপুরের বিভিন্ন এলাকায় জল সংকট দেখা দিচ্ছে।

নন্দিতা রায় এ দিনের অধিবেশনে অভিযোগ করেন, সন্তোষপুর এলাকায় অনেক বাড়িতে বেআইনিভাবে জল তোলা হচ্ছে বিশেষ করে অবৈধভাবে যে বাড়িগুলি তৈরি হচ্ছে সেই বাড়িগুলোতে টুলু পাম্পের মাধ্যমে বেআইনিভাবে পুরসভার জল টেনে নেওয়া হচ্ছে। যার জেরে কলকাতা পুরসভার ১০৩ নম্বর ওয়ার্ডের সন্তোষপুরের বিভিন্ন এলাকায় জল সংকট দেখা দিয়েছে বলে অভিযোগ বাম কাউন্সিলরের। এই অভিযোগ শুনে মেয়র বলেন, এই ধরনের অভিযোগ প্রায়ই আসে। এই সমস্যার সমাধানে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। এ নিয়ে পাকাপাকিভাবে আইন প্রণয়ন করার কথা চিন্তা ভাবনা করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন