বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌নাম থাকলেই কি বড় কেলেঙ্কারি?’‌, বিজেপির তোলা অভিযোগ নস্যাৎ ফিরহাদের
পরিবহণমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।
পরিবহণমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

‘‌নাম থাকলেই কি বড় কেলেঙ্কারি?’‌, বিজেপির তোলা অভিযোগ নস্যাৎ ফিরহাদের

  • সমস্ত অভিযোগ খারিজ করে দিয়ে শনিবার ফিরহাদ জানান, ওই ফলকের বিষয়ে তাঁর কিছু জানা নেই।

ভুয়ো টিকা নিয়ে বিজেপি যখন রাজ্যের মন্ত্রীদের উপর দোষারোপ করছে তখন সেইসব অভিযোগ নস্যাৎ করে দিলেন পরিবহণমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। এমনকী রবীন্দ্রমূর্তির ফলকে রাজ্যের নেতা–মন্ত্রীদের সঙ্গে দেবাঞ্জন দেবের নাম নিয়েও মুখ খুললেন তিনি। সমস্ত অভিযোগ খারিজ করে দিয়ে শনিবার ফিরহাদ জানান, ওই ফলকের বিষয়ে তাঁর কিছু জানা নেই। পাশাপাশি তিনি বলেন, ‘কারা ওই ফলক লাগিয়েছিল আমি জানি না। এই অনুষ্ঠানে আমরা যাইনি। আর কিসের কেলেঙ্কারি বলা হচ্ছে? ফলক কি আমাকে জিজ্ঞাসা করে লাগিয়েছিল? নাম থাকলেই কি বড় কেলেঙ্কারি? নরেন্দ্র মোদী ও নীরব মোদীর এক সঙ্গে ছবি আছে। তাঁদের বৈঠকের ছবি রয়েছে। এটার কে তদন্ত করবে?’‌

ভুয়ো আইএএস অফিসার দেবাঞ্জনের নানা কীর্তি সামনে আসতেই ওই ফলকে নেতা–মন্ত্রীদের সঙ্গে তাঁর নাম থাকা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়। শুক্রবার বিকেলে ফলকটি তুলে ফেলা হয়। তারপরই ফলক নিয়ে ফিরহাদের আরও দাবি, ‘আমার নামে এমন কত ফলক আছে তা আমি নিজেই জানি না। আমরা যারা রাস্তায় নেমে মানুষের কাজ করি, তাদের কান ধরে অপদস্থ করার সুযোগ বেশি পাওয়া যায়। কিন্তু তাও আমরা কাজ করে যাব।’

শনিবার ভুয়ো টিকা কাণ্ডে কড়া বার্তা দিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া শুরু হয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোনও অন্যায় বরদাস্ত করেন না। এতকিছুর মধ্যেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যাঁরা ভুয়ো টিকা নিয়েছেন তাঁদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাচ্ছেন। যাঁরা ভুয়ো শিবিরে অনেকেই প্রতারিত। তাঁদের বিশ্বাস ফেরাতে হবে। এখন তাঁদের সবার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা জরুরি। তাই সেটাই করা হয়েছে।’

বন্ধ করুন