বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Firhad Hakim: ‘‌হাম রহে ইয়া না রহে কাম চলতা রহেগা’‌, কেন এমন মন্তব্য করলেন ফিরহাদ?

Firhad Hakim: ‘‌হাম রহে ইয়া না রহে কাম চলতা রহেগা’‌, কেন এমন মন্তব্য করলেন ফিরহাদ?

ফিরহাদ হাকিম। নিজস্ব ছবি।

এখন ফিরহাদ হাকিম তিন দফতরের মন্ত্রী। সেগুলি হল— পরিবহণ, পুর ও নগরোন্নয়ন এবং আবাসন। এরপরও কলকাতার মহানাগরিক তিনি। সেখান থেকে পরিবহণ দফতর তাঁর কাছ থেকে চলে যেতে পারে বলে সূত্রের খবর। সুতরাং বাকি দুটি দফতর তাঁর কাছেই থাকছে। আর মেয়র পদও থাকছে তাঁর কাছে।

আজ, বুধবার মন্ত্রিসভায় রদবদল হবে। নতুন মন্ত্রী যেমন হবেন তেমনই বাদ পড়বেন কেউ কেউ। কারও দফতর কমে যেতে পারে। আসলে এক ব্যক্তি এক পদ নীতি এখন থেকেই শুরু হতে চলেছে। এই নীতি যখন আগে চালু করতে চেয়েছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তখন সবচেয়ে বেশি আপত্তি করেছিলেন ফিরহাদ হাকিম। তখন অভিষেক থামলেও এখন জেলা স্তরে সেই নীতি চালু করে দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। আর তাতে দফতর কমে যেতে পারে ফিরহাদ হাকিমের বলে সূত্রের খবর। সেটা টের পেয়েছেন ফিরহাদও।

কী কী রয়েছে ফিরহাদের হাতে?‌ এখন ফিরহাদ হাকিম তিন দফতরের মন্ত্রী। সেগুলি হল— পরিবহণ, পুর ও নগরোন্নয়ন এবং আবাসন। এরপরও কলকাতার মহানাগরিক তিনি। সেখান থেকে পরিবহণ দফতর তাঁর কাছ থেকে চলে যেতে পারে বলে সূত্রের খবর। সুতরাং বাকি দুটি দফতর তাঁর কাছেই থাকছে। আর মেয়র পদও থাকছে তাঁর কাছে।

কী বলছেন ফিরহাদ হাকিম?‌ রাজ্য মন্ত্রিসভায় রদবদলের মুহূর্তে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করলেন ফিরহাদ হাকিম। বুধবার বিকেল ৪টে নাগাদ মন্ত্রিসভায় নতুন ৮ জনের শপথগ্রহণ হবে। তার পর দফতর রদবদলের বিজ্ঞপ্তি জারি হওয়ার কথা। ঠিক তার প্রাক্কালে বুধবার দুপুরে টাটা সংস্থার সঙ্গে পরিবহণ দফতরের বাস সংক্রান্ত চুক্তি সই অনুষ্ঠানে পরিবহণমন্ত্রী বলেন, ‘‌হাম রহে ইয়া না রহে কাম চলতা রহেগা।’‌ অর্থাৎ আমি থাকি বা না থাকি কাজ চলতে থাকবে।

ঠিক কী জানা যাচ্ছে?‌ সূত্রের খবর, এই রদবদলে পরিবহণ দফতর হাতছাড়া হতে পারে ফিরহাদ হাকিমের। তাঁর কাছে থাকবে পুর ও নগরোন্নয়ন এবং আবাসন দফতর। আবার তিনি কলকাতা পুরসভার মেয়র। এই নিয়ে দলের মধ্যে অনেকেই বলেছেন, দলীয় নীতি মানা হচ্ছে না। তাই এই দফতর সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। এই কারণেই হয়তো ফিরহাদ হাকিম এমন মন্তব্য করেছেন।

বন্ধ করুন