বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > দুয়ারে সরকার কর্মসূচি ঘিরে প্রকাশ্যে তৃণমূলের কোন্দল, নথি ছিড়ে দিলেন মন্ত্রী
সাধন পান্ডে
সাধন পান্ডে

দুয়ারে সরকার কর্মসূচি ঘিরে প্রকাশ্যে তৃণমূলের কোন্দল, নথি ছিড়ে দিলেন মন্ত্রী

  • এরই মধ্যে বেলা ১টা নাগাদ সেখানে পৌঁছন স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের ক্রেতাসুরক্ষা মন্ত্রী সাধন পান্ডে। তিনি তৃণমূলের অপর গোষ্ঠীর পাতা টেবিল উলটে দেন। ছিঁড়ে দেন কাগজপত্র।

দুয়ারে সরকার কর্মসূচি ঘিরে প্রকাশ্যে চলে এল তৃণমূলের ঘরোয়া কোন্দল। সরকারি কর্মসূচিতে দলীয় হস্তক্ষেপের অভিযোগে টেবিল উলটে দিয়ে এলেন খোদ মন্ত্রী সাধন পান্ডে। যার ফলে এদিন উলটোডাঙায় ভন্ডুল হয়ে যায় দুয়ারে সরকার কর্মসূচি। ঘটনায় দুপক্ষই পরস্পর পরস্পরের বিরুদ্ধে আঙুল তুলেছেন। 

এদিন উলটোডাঙার মাদার টেরেসা কমিউনিটি হলে দুয়ারে সরকার কর্মসূচির আয়োজন করে প্রশাসন। বিভিন্ন সরকারি পরিষেবার সুবিধা পেতে সকাল থেকেই সেখানে ভিড় জমান বহু মানুষ। তাদের অভিযোগ, বেলা বাড়লেও লাইন এগোচ্ছিল না। অভিযোগ ওঠে ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর অরূপ চক্রবর্তীর অনুগামীরা তাদের ঘনিষ্ঠদের লাইন এড়িয়ে ভিতরে ঢুকিয়ে দিচ্ছেন। এমনকী টেবিল পেতে প্রশাসনিক কর্মীদের সমান্তরাল ভাবে নাম নথিভুক্ত করছেন তাঁরা। এই নিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা মানুষের মধ্যে ক্ষোভও ছড়ায়। 

এরই মধ্যে বেলা ১টা নাগাদ সেখানে পৌঁছন স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের ক্রেতাসুরক্ষা মন্ত্রী সাধন পান্ডে। তিনি তৃণমূলের অপর গোষ্ঠীর পাতা টেবিল উলটে দেন। ছিঁড়ে দেন কাগজপত্র। মন্ত্রীর এমন আচরণে মুহূর্তে উত্তেজনা ছড়ায়। সাধনবাবুর রূদ্রমূর্তি দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন সাধারণ মানুষ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় মানিকতলা থানার পুলিশ। যদিও তার আগেই এলাকা ছাড়েন সাধনবাবু। তার পর পরিস্থিতি শান্ত হলেও কর্মসূচি আর শুরু করতে পারেননি প্রশাসনের কর্মীরা। 

পরে সংবাদমাধ্যমকে সাধনবাবু জানান, ‘সরকারি কর্মসূচিতে দলীয় কর্মীরা সমান্তরাল টেবিল পেতেছেন কেন? সরকারি কর্মসূচিতে সরাসরি প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গে সাধারণ মানুষ কথা বলবেন। এর মধ্যে কোনও রাজনৈতিক দলের কর্মীরা থাকতে পারেন না। তাই টেবিল উলটে দিয়ে এসেছি।’

 

বন্ধ করুন