বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > শহরের বুকে নাবালিকাকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৪, অভিযুক্ত পূর্বপরিচিত যুবকও
শহরের বুকে নাবালিকাকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৪, অভিযুক্ত পূর্বপরিচিত যুবকও। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
শহরের বুকে নাবালিকাকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৪, অভিযুক্ত পূর্বপরিচিত যুবকও। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

শহরের বুকে নাবালিকাকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৪, অভিযুক্ত পূর্বপরিচিত যুবকও

  • ইতিমধ্যেই অভিযুক্তদের গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ফের গণধর্ষণের ঘটনা ঘটল। শুক্রবার রাতে গণধর্ষণের শিকার এক নাবালিকা। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তদের গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে গণধর্ষণের ধারা এবং পকসো আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। ঘটনাটি ঘটেছে নিউটাউনের রাম মন্দিরের কাছে নির্জন মাঠে। ইকোপার্ক থানার পুলিশ গ্রেফতার করেছে চারজনকে।

জঙ্গলে পরিপূর্ণ ওই পরিত্যক্ত জমিতে ১৭ বছরের নাবালিকাকে জোর করে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। নাবালিকার সঙ্গে তাঁর এক পুরুষসঙ্গী ঘটনাস্থলে ছিলেন বলে খবর। ধর্ষণকারীদের চারজনের মধ্যে দু’জন সেই সঙ্গীকে মারধর করে আটকে রেখেছিল। বাকি দু’‌জন অন্ধকারাচ্ছন্ন লম্বা ঘাসে ঢাকা একটি ঝোপে টেনে নিয়ে গিয়ে লাগাতার ধর্ষণ করে নাবালিকার উপর। সেই সময় আক্রমণকারীদের হাত ছাড়িয়ে পালিয়ে যায় নাবালিকার সঙ্গী।

পুলিশ সূত্রে খবর, একজন যুবক ওই নাবালিকার পূর্ব পরিচিত ছিল। ওই নাবালিকাকে বাড়ি থেকে পূর্ব পরিচিত ওই যুবক ডেকে আনে। তারপরই গণধর্ষণ করা হয় নাবালিকাকে। এই নাবালিকাকে গণধর্ষণের অভিযোগে চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অত্যাচার চলাকালীন ওই নাবালিকা ক্রমাগত চিৎকার করছিল। রাস্তায় টহল দেওয়ার সময় পুলিশের কানে তা পৌঁছয়। এরপর তড়িঘড়ি চিৎকারের উৎস খুঁজে পুলিশ সেখানে পৌঁছয়। উদ্ধার করা হয় নাবালিকাকে। অভিযুক্তদের তিনজন ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। একজনকে ধরে ফেলে পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বাকি তিনজনের সন্ধান মেলে।

ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে এই গণধর্ষণ কাণ্ডে আর কেউ জড়িত আছে কি না তার খোঁজ চালাবে পুলিশ। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে, পুলিশের নিরাপত্তা নিয়ে। সেখানে কমিশনারেট থাকা সত্ত্বেও যথেষ্ট নিরাপত্তা নেই বলেই অভিযোগ। কারণ সারারাত অভিযান চালিয়ে বিধাননগরের ইকোপার্ক ও নিউটাউন থানা এলাকার তিনটি জায়গা থেকে ওই বাকি তিন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। নাবালিকাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বন্ধ করুন