বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Dead Body: পিস ওয়ার্ল্ড থেকে উধাও খ্রিস্টান ব্যক্তির মৃতদেহ, উদ্ধার শ্মশান ঘাট থেকে

Dead Body: পিস ওয়ার্ল্ড থেকে উধাও খ্রিস্টান ব্যক্তির মৃতদেহ, উদ্ধার শ্মশান ঘাট থেকে

ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার। (প্রতীকী ছবি)

ওই ব্যক্তি মধ্য কলকাতার বাসিন্দা। তাঁর তিন ছেলে কাজের সূত্রের বাইরে থাকেন। শুক্রবার ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। তাই মৃত্যুর পর ওই ব্যক্তির দেহ রেখে দেওয়া হয় পিস ওয়ার্ল্ডে। সোমবার ভুল করে পিস ওয়ার্ল্ডের কর্মীরা দেহটি অন্য একটি পরিবারের হাতে তুলে দেয়। 

কলকাতায় পিস ওয়ার্ল্ড থেকে নিখোঁজ হওয়া মৃতদেহ উদ্ধার হল নিমতলা শ্মশানঘাট থেকে। বৈদ্যুতিক চুল্লিতে রাখার প্রস্তুতি চলছিল জোর কদমে। ঠিক শেষ মুহূর্তে ওই দেহটি উদ্ধার হয়। পরে মৃত ব্যক্তির পরিবারের হাতে দেহটি তুলে দেওয়া হয়। মৃত ব্যক্তি খ্রিস্টান ছিলেন। তাই পরিবারের সদস্যরা খ্রিস্টান কবরস্থানে ওই মৃতদেহ দাফন করেন। সোমবার সকালে ওই মৃতদেহ পিস ওয়ার্ল্ড থেকে নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিল। যদিও এই ঘটনায় পরিবারের তরফে কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। তবে পিস ওয়ার্ল্ডের দুই কর্মীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

জানা গিয়েছে, ওই ব্যক্তি মধ্য কলকাতার বাসিন্দা। তাঁর তিন ছেলে কাজের সূত্রের বাইরে থাকেন। শুক্রবার ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। তাই মৃত্যুর পর ওই ব্যক্তির দেহ রেখে দেওয়া হয় পিস ওয়ার্ল্ডে। সোমবার ভুল করে পিস ওয়ার্ল্ডের কর্মীরা দেহটি অন্য একটি পরিবারের হাতে তুলে দেয়। এদিনই নিমতলা শ্মশান ঘাটে দেহটি সৎকার করার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়ে গিয়েছিল। এদিকে, বাবার দেহ খুঁজে না পেয়ে ছেলেরা তপসিয়া থানা এবং কলকাতা পুরসভার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। পরে পুরসভা এবং পুলিশের পক্ষ থেকে মৃতদেহের খোঁজ চালানো হয়। অবশেষে নিমতলা শ্মশানঘাট থেকে ওই মৃতদেহ খুঁজে পাওয়া যায়।

পুরসভা সূত্রের খবর, সমস্ত শ্মশানে কিছুক্ষণের জন্য মৃতদেহ দাহ করার প্রক্রিয়া বন্ধ করে দেওয়া হয়। নিখোঁজ মৃতদেহটি চুল্লিতে ফেলার কথা ছিল। তখনই পুরসভার নির্দেশ পেয়ে দাহ বন্ধ করে দেওয়া হয়। পরে ছেলেরা নিমতলা শ্মশানঘাটে এসে দেহ শনাক্ত করেন। তাঁরা দেহটি খ্রিস্টান কবরস্থানে নিয়ে যান। এদিকে, অন্য পরিবারও তাঁদের পরিবারের সদস্যের লাশ শনাক্ত করতে পেরেছে। এই ঘটনার পরেই তদন্ত শুরু করেছে কলকাতা পুরসভা। ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ জানিয়েছেন, তদন্ত শুরু হয়েছে। পিস ওয়ার্ল্ডে মৃতদেহ নিয়ে আসা শোকাহত পরিবারকে একটি টোকেন দেওয়া হয়। একটি মৃতদেহ নিয়ে যাওয়ার সময় টোকেনটি পরীক্ষা করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছ বলে তিনি জানিয়েছেন।

বন্ধ করুন