বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বাংলাদেশের ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ দুষ্কৃতী কলকাতায়, সিআইডি জেরায় চাঞ্চল্যকর তথ্য
বাংলাদেশের কুখ্যাত দুষ্কৃতী নূর নবী প্রকাশ ম্যাক্সন ওরফে তমাল চৌধুরী।

বাংলাদেশের ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ দুষ্কৃতী কলকাতায়, সিআইডি জেরায় চাঞ্চল্যকর তথ্য

  • এই নূর ম্যাক্সন ভারতে এসে তমাল চৌধুরী নামে পাসপোর্ট বানিয়ে ফেলে বলে অভিযোগ।

সিআইডি হাতে ধরা পড়েছে বাংলাদেশের কুখ্যাত দুষ্কৃতী নূর নবী প্রকাশ ম্যাক্সন ওরফে তমাল চৌধুরী। আর তাঁকে জেরা করে চাঞ্চল্যকর তথ্য পেয়েছে সিআইডি। এই দুষ্কৃতীর নামে ১৭টি মামলা রয়েছে বাংলাদেশের একাধিক থানায়। এমনকী গ্রেফতারি পরোয়ানা পর্যন্ত রয়েছে। এই নূর ম্যাক্সন ভারতে এসে তমাল চৌধুরী নামে পাসপোর্ট বানিয়ে ফেলে বলে অভিযোগ।

কী কী তথ্য হাতে পেলেন সিআইডি আধিকারিকরা?‌ সিআইডি সূত্রে খবর, এই দুষ্কৃতী বাংলাদেশ থেকে পালিয়ে যায় ওমানে। সেখানে রং মিস্ত্রির কাজ করত। তারপর ওমান থেকে পালিয়ে চলে আসে কলকাতার নিউ মার্কেট এলাকায়। তখন নাম বদলে তমাল চৌধুরী হয় সে। নিউ মার্কেটে মাছ বিক্রি করত সে। এই দুষ্কৃতীর সঙ্গে সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের যোগ আছে কিনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরও যে তথ্য মিলেছে, তমাল চৌধুরী পরিচয় দিয়ে মধ্যমগ্রামে এক মহিলা ঘনিষ্ঠতা হয়। এমনকী ওই মহিলার সঙ্গে লিভ–ইন সম্পর্ক তৈরি করে দুষ্কৃতী নূর। তখন ডানলপ এলাকায় থাকত সে৷ বাংলাদেশে অস্ত্র কারবারের সঙ্গে যুক্ত ছিল এই দুষ্কৃতী। বাংলাদেশে র‌্যাব এই নূরকে খুঁজছিল। তাই ওমানে পালিয়ে যায় সে। আর ওমানে তার শাগরেদ ধরা পড়ায় পালিয়ে আসে কলকাতায়।

কিভাবে ধরা পড়ল এই দুষ্কৃতী?‌ সিআইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার ভাড়া বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে নগদ টাকা, পাসপোর্ট, ভোটার কার্ড, প্যান কার্ড, আধার কার্ড–সহ একাধিক নথি। বাংলাদেশের ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ এই কুখ্যাত দুষ্কৃতীকে সিআইডি এসওজি আধিকারিকরা গ্রেফতার করে।

বন্ধ করুন