প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

৫ দিন মেয়ের মৃতদেহ আগলে বসে রইলেন মা, কামারহাটিতে আতঙ্ক

  • ঘরে ঢুকে প্রতিবেশীরা দেখেন, খাটের ওপর চাদর ঢাকা দেওয়া অবস্থায় পড়ে রয়েছে পারমিতার দেহ। বেরোচ্ছা কটূ গন্ধ।

পাঁচ দিন ধরে মেয়ের দেহ আগলে বসে রইলেন মা। ঘটনা উত্তর ২৪ পরগনার কামারহাটি পুর এলাকার। মঙ্গলবার বিষয়টি জানতে পেরে থানায় খবর দেন স্থানীয়রা। পুলিশ এসে দেহটি উদ্ধার করে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, কামারহাটি পুরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ডে মেয়ে পারমিতার সঙ্গে থাকতেন মা জয়া ভট্টাচার্য। দিন কয়েক ধরে দেখা মিলছিল না তাঁদের। এতে আশঙ্কিত হয়ে মঙ্গলবার তাঁদের বাড়িতে গিয়ে ডাকাডাকি করেন স্থানীয়রা। ঘর থেকে বেরিয়ে আসেন জয়া দেবী। তবে মেয়ে পারমিতা কোথায় তার জবাব দিতে চাননি তিনি। স্থানীয়দের চাপে শেষ পর্যন্ত তিনি জানান মেয়ে মারা গিয়েছে।

এর পর ঘরে ঢুকে প্রতিবেশীরা দেখেন, খাটের ওপর চাদর ঢাকা দেওয়া অবস্থায় পড়ে রয়েছে পারমিতার দেহ। বেরোচ্ছে কটূ গন্ধ। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশে খবর দেন স্থানীয়রা। বেলঘরিয়া থানার পুলিশকর্মীরা এসে দেহটি উদ্ধার করে নিয়ে যান। মেয়ে কবে মারা গিয়েছে তাও বলতে পারেননি জয়া দেবী। কীভাবে তাঁর মৃত্যু হয়েছে? জবাব মেলেনি সেই প্রশ্নেরও।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, দিন পাঁচেক আগে শেষবার দেখা গিয়েছিল পারমিতাকে। রেশন তুলতে বেরিয়েছিলেন তিনি। তাই অনুমান ৪-৫ দিন আগে মৃত্যু হয়েছে তাঁর।

এই ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে। তরুণীর মৃত্যু করোনায় কি না তা পরীক্ষা করানোর দাবি তুলেছেন স্থানীয়রা।



বন্ধ করুন