বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিজেপিতে মুকুলের প্রোমোশন, হলেন সর্বভারতীয় সহ সভাপতি, পদ পেলেন অনুপমও
মুকুল রায়। ফাইল ছবি
মুকুল রায়। ফাইল ছবি

বিজেপিতে মুকুলের প্রোমোশন, হলেন সর্বভারতীয় সহ সভাপতি, পদ পেলেন অনুপমও

  • শনিবার প্রকাশিত তালিকায় মুকুলের সঙ্গে সহ সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন, ছত্তিসগড়ের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী রমন সিং, রাজস্থানের প্রাপ্তন মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে সিন্ধিয়া, ওড়িশার জয় পান্ডা।

বিজেপিতে পদোন্নতি হল মুকুল রায়ের। শনিবার প্রকাশিত হয়েছে কেন্দ্রীয় বিজেপির নতুন পদাধিকারীদের তালিকা। তাতে সহ সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মুকুলকে। মুকুল ছাড়াও সেখানে নাম রয়েছে পশ্চিমবঙ্গের আরও ১ নেতার। নাম রয়েছে দার্জিলিংয়ের সাংসদ রাজু বিস্তেরও। 

শনিবার প্রকাশিত তালিকায় মুকুলের সঙ্গে সহ সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন, ছত্তিসগড়ের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী রমন সিং, রাজস্থানের প্রাপ্তন মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে সিন্ধিয়া, ওড়িশার জয় পান্ডা। এতদিন পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচনী কমিটির আহ্বায়ক ছিলেন মুকুল। 

বিজেপিতে যোগদানের পর থেকেই মুকুলের পদ নিয়ে দড়ি টানাটানি অব্যাহত। সম্প্রতি বিজেপির নবগঠিত রাজ্য কমিটিতে মুকুলের ঠাঁই হয়নি। এর পরই বিদ্রোহ করেন মুকুল। দিল্লিতে দলের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক ছেড়ে কলকাতা ফিরে আসেন। 

তার পরই মুকুলের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা। এমনকী মাঝে মুকুলকে মন্ত্রী করা হতে পারে বলেও শোনা যায়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাঁকে সাংগঠনিক পদ দিল বিজেপির। 

বিজেপির গঠনকাঠামোর দ্বিতীয়  সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ পদ সহ সভাপতি। ফলে এক কথা মুকুলের পদোন্নতি হল বললেও ভুল বলা হয় না। 

মুকুল ছাড়াও এদিন প্রকাশিত তালিকায় দলের সর্বভারতীয় সচিবের তালিকায় রয়েছে অনুপম হাজরার নাম। বিজেপিতে যোগদানের পর থেকেই পুরনো দল তৃণমূলের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন অনুপম। যাদবপুরে মিমির কাছে ভোটে হারলেও নিয়মিত মাঠে ময়দানে রয়েছেন তিনি। যুব মোর্চার নানা কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দিতে দেখা যায় তাঁকে। সঙ্গে নিয়মিত তৃণমূলের বিরুদ্ধে ক্ষুরধার আক্রমণ চালিয়ে খবরেও শিরোনামে থাকেন তিনি। 

এছাড়া সর্বভারতীয় মুখপাত্রের তালিকায় নাম রয়েছে দার্জিলিংয়ের সাংসদ রাজু বিস্তের।

 

বন্ধ করুন