বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ফুসফুস প্রতিস্থাপন প্রয়োজন মুকুল রায়ের পত্নীর, নিয়ে যাওয়া হতে পারে চেন্নাইয়ে
শুক্রবার তৃণমূল ভবনে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, মুকুল রায় ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
শুক্রবার তৃণমূল ভবনে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, মুকুল রায় ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ফুসফুস প্রতিস্থাপন প্রয়োজন মুকুল রায়ের পত্নীর, নিয়ে যাওয়া হতে পারে চেন্নাইয়ে

  • পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, ইতিমধ্যে চেন্নাই থেকে চিকিৎসকদের একটি দল কৃষ্ণাদেবীকে দেখে গিয়েছেন।

কলকাতার ইএম বাইপাসের ধারে বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মুকুল রায়ের স্ত্রী কৃষ্ণা রায়ের অবস্থা অতি সংকটজনক। তাঁকে একমো সাপোর্টে রেখেছেন চিকিৎসকরা। পরিবার সূত্রে খবর, ফুসফুল প্রতিস্থাপন করেই একমাত্র সুস্থ করে তোলা সম্ভব কৃষ্ণাদেবীকে। সেজন্য ইতিমধ্যে দাতার খোঁজ শুরু করেছে রায় পরিবার। 

শুক্রবার বিকেলে মুকুল রায় তৃণমূলে যোগদানের পর কৃষ্ণা দেবীকে হাসপাতালে দেখতে যান রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। জানা যায়, কৃষ্ণাদেবীর ফুসফুস প্রতিস্থাপনের জন্য  তাঁকে চেন্নাই নিয়ে যেতে চান চিকিৎসকরা। কিন্তু বর্তমান শারীরিক পরিস্থিতিতে তাঁকে কোনও ভাবেই এয়ার অ্যাম্বুল্যান্সে চেন্নাই নিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। 

পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, ইতিমধ্যে চেন্নাই থেকে চিকিৎসকদের একটি দল কৃষ্ণাদেবীকে দেখে গিয়েছেন। তাঁরা জানিয়েছেন, ফুসফুস প্রতিস্থাপনের মাধ্যমেই শুধুমাত্র তাঁকে সুস্থ করে তোলা সম্ভব। ফুসফুসদাতার খোঁজ করতে ইতিমধ্যে নাম নথিভুক্ত করিয়েছেন তিনি। শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলে তাঁকে চেন্নাই উড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনাও রয়েছে।

গত মাসে করোনা আক্রান্ত হন মুকুল রায় ও তাঁর স্ত্রী। তার পর করোনা সংক্রমণ কাটলেও ফুসফুসের উপসর্গ দেখা দেয় তাঁর। সেই থেকে হাসপাতালে ভর্তি মুকুল রায়ের পত্নী।

 

বন্ধ করুন