বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'কালপ্রিট' নারকেলডাঙা থানার ওসি, দাবি কাঁকুড়গাছিতে মৃত BJP কর্মীর দাদা
কাঁকুড়গাছিতে সিবিআই।
কাঁকুড়গাছিতে সিবিআই।

'কালপ্রিট' নারকেলডাঙা থানার ওসি, দাবি কাঁকুড়গাছিতে মৃত BJP কর্মীর দাদা

কলকাতা পুলিশের হোমিসাইড শাখার যে আধিকারিকরা সিবিআই দফতরে যান, তাঁদের মধ্যে ওই ২ জন আধিকারিকও ছিলেন যাঁরা নিহত বিজেপি কর্মীর বাড়ি গিয়েছিলেন।

‌কলকাতা পুলিশের বিরুদ্ধে চাপ সৃষ্টি করার গুরুতর অভিযোগ আনলেন কাঁকুড়গাছিতে নিহত বিজেপি কর্মীর দাদা। সিবিআইয়ের কাছে এই কথা স্পষ্ট জানিয়েছেন তিনি। সেইসঙ্গে সিবিআই আধিকারিকদের কাছে প্রমাণস্বরূপ একটি ভিডিয়ো তুলে দিয়েছেন নিহত বিজেপি কর্মীর পরিবারের সদস্যরা।

গত ২ মে ভোটের ফল প্রকাশের দিন মাথায় ভারী কিছু জিনিস দিয়ে আঘাত করে খুন করা হয় সক্রিয় বিজেপি কর্মী অভিজিৎ সরকারকে। ভোট পরবর্তী হিংসায় খুন ও ধর্ষণকাণ্ডে তদন্তভার হাতে পাওয়ার পর গত বুধবার নিজাম প্যালেসে ডেকে পাঠানো হয় অভিজিতের দাদা বিশ্বজিৎ সরকারকে। সেখানে বিশ্বজিৎ সিবিআই আধিকারিকদের জানান, 'কলকাতা পুলিশের হোমিসাইড শাখার ২ আধিকারিক ঘটনার পর তাঁদের বাড়িতে আসেন। সাদা কাগজে সই করানোর জন্য চাপ দেন। নারকেলডাঙা থানার ওসি সবচেয়ে বড় কালপ্রিট।' সিবিআইয়ের হাতে একটি ভিডিয়ো তুলে দিয়েছেন বিশ্বজিৎ। জানা যায়, কলকাতা পুলিশের হোমিসাইড শাখার যে আধিকারিকরা সিবিআই দফতরে যান, তাঁদের মধ্যে ওই ২ জন আধিকারিকও ছিলেন, যাঁরা নিহত বিজেপি কর্মীর বাড়ি গিয়েছিলেন।

উল্লেখ্য, ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে জয়েন্ট ডিরেক্টরদের সঙ্গে বৈঠক করেন সিবিআইয়ের ক্রাইম ব্রাঞ্চের প্রধান অখিলেশ সিং। ঠিক হয়েছে, ভোট পরবর্তী হিংসায় অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় বাড়তি গুরুত্ব দেবে সিবিআই। কোন ধারায়, কাদের বিরুদ্ধে এফআইআর হবে, তা ঠিক করা হবে। অভিযোগ খতিয়ে দেখে তবেই তা চূড়ান্ত করা হবে।

বন্ধ করুন