বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > উচ্চমাধ্যমিকে ভর্তিতে উদ্বেগ কমাতে বড় ঘোষণা সংসদের, মাথায় হাত একাধিক স্কুলের
 মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল বের হতেই এভাবেই আনন্দে মেতেছিলেন পড়ুয়ারা (ফাইল ছবি)
 মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল বের হতেই এভাবেই আনন্দে মেতেছিলেন পড়ুয়ারা (ফাইল ছবি)

উচ্চমাধ্যমিকে ভর্তিতে উদ্বেগ কমাতে বড় ঘোষণা সংসদের, মাথায় হাত একাধিক স্কুলের

  • ১০০ শতাংশ পাশ করার জেরেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। 

মাধ্যমিকে  একেবারে ১০০ শতাংশ পাশ। তার সঙ্গেই নম্বরের তো ছড়াছড়ি। এনিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা মিম ঘুরেছে গত কয়েকদিন ধরে। এদিকে সেই সব মিমের ঝড় কাটিয়ে উঠে পরীক্ষার্থীদের সামনে এসেছিল নয়া উদ্বেগ । উচ্চমাধ্যমিকে আসন তো সীমিত। ভর্তি কোথায় হওয়া সম্ভব। তবে এবার বিপুল পাশের কথা মাথায় রেখে বড় ঘোষণা করে দিল উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। সিংহভাগ পড়ুয়াই যাতে ভর্তি হতে পারেন সেকারণে স্কুলগুলিতে একাদশ শ্রেণিতে আসন সংখ্যা একলাফে অনেকটাই বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানিয়েছে,  এবার থেকে প্রত্য়েক স্কুলে ২৭৫জন পড়ুয়ার জায়গায় ৪০০জনকে ভর্তি নিতে পারবে। সূত্রের খবর, আসন সংখ্যা বৃদ্ধির অনুমোদনের জন্য বিকাশ ভবনে আবেদন করেছিল সংসদ। বিকাশ ভবন থেকে এব্যাপারে সবুজ সংকেত মিলতেই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে সংসদ। বিজ্ঞপ্তিতে লেখা হয়েছে, 'মাননীয়া সভাপতির নির্দেশে সকল উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যায়তনকে জানানো যাচ্ছে যে এবার ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের জন্য একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ আসন সংখ্যা ২৭৫ থেকে বর্ধিত করে ৪০০ আসন সংখ্যা করা হল।' নীচে সংসদের সেক্রেটারি ইন চার্জের সই রয়েছে।

নয়া বিজ্ঞপ্তি অনুসারে দেখা যাচ্ছে ২৭৫জনের জায়গায় ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ৪০০জন পড়ুয়া কোনও স্কুলে ভর্তি হতে পারবেন। শিক্ষকদের একাংশের দাবি, এর মাধ্যমে বিপুল সংখ্যক ছাত্রছাত্রী ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাবেন। কিন্তু এর সঙ্গেই বড় প্রশ্ন ২৭৫জন পড়ুয়াকে জায়গা দিতেই স্কুলগুলিতে সমস্যা তৈরি হয়। ৪০০জন পড়ুয়ার জায়গা হবে কীভাবে? রাতারাতি পরিকাঠামো বৃদ্ধি কি আদৌ সম্ভব? অনলাইন ক্লাসে যেমন তেমন করে সামলানো গেলেও অফলাইন ক্লাসে কি আদৌ ৪০০জনকে সামলানো সম্ভব? আর এনিয়ে এবার নয়া উদ্বেগ একাধিক স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে। 

 

একেবারে ১০০ শতাংশ পাশ। তার সঙ্গেই নম্বরের তো ছড়াছড়ি। এনিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা মিম ঘুরেছে গত কয়েকদিন ধরে। এদিকে সেই সব কাটিয়ে উঠে পরীক্ষার্থীদের সামনে নয়া উদ্বেগ এসেছিল। আসন তো সীমিত। ভর্তি কোথায় হওয়া সম্ভব। তবে এবার বিপুল পাশের কথা মাথায় রেখে বড় ঘোষণা করে দিল উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। সিংহভাগ পড়ুয়াই যাতে ভর্তি হতে পারেন সেকারণে স্কুলগুলিতে একাদশ শ্রেণিতে আসন সংখ্যা একলাফে অনেকটাই বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানিয়েছে,  এবার থেকে প্রত্য়েক স্কুলে ২৭৫জন পড়ুয়ার জায়গায় ৪০০জনকে ভর্তি নিতে পারবে। সূত্রের খবর, আসন সংখ্যা বৃদ্ধির অনুমোদনের জন্য বিকাশ ভবনে আবেদন করেছিল সংসদ। বিকাশ ভবন থেকে এব্যাপারে সবুজ সংকেত মিলতেই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে সংসদ। 

নয়া বিজ্ঞপ্তি অনুসারে দেখা যাচ্ছে ২৭৫জনের জায়গায় ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ৪০০জন পড়ুয়া ভর্তি হতে পারেবন। শিক্ষকদের একাংশের দাবি এর মাধ্যমে বিপুল সংখ্যক ছাত্রছাত্রী ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাবেন। এর সঙ্গেই বড় প্রশ্ন ২৭৫জন পড়ুয়াকে জায়গা দিতেই স্কুলগুলিতে সমস্যা তৈরি হয়। ৪০০জন পড়ুয়ার জায়গা হবে কীভাবে। রাতারাতি পরিকাঠামো বৃদ্ধি কি আদৌ সম্ভব। অনলাইন ক্লাসে যেমন তেমন করে সামলানো গেলেও অফলাইন ক্লাসে কি আদৌ ৪০০জনকে সামলানো সম্ভব। এবার নয়া উদ্বেগ স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে। 

|#+|

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন