বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > হোয়াটসঅ্যাপে যোগাযোগ রাখত জঙ্গিরা, দিনভর জেরায় উঠে এল আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য
রবিবার এক সন্দেহভাজন জঙ্গিকে আদালতে পেশ করছে NIA। (PTI)
রবিবার এক সন্দেহভাজন জঙ্গিকে আদালতে পেশ করছে NIA। (PTI)

হোয়াটসঅ্যাপে যোগাযোগ রাখত জঙ্গিরা, দিনভর জেরায় উঠে এল আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য

  • এরই মধ্যে জিজ্ঞাসাবাদে জানা গিয়েছে, গজবাওয়া এ তুল হিন্দ নামে একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ রাখত জঙ্গিরা। সেই গ্রুপে মোট ২২ জন সদস্য ছিলেন।

মুর্শিদাবাদে আল কায়দা যোগে গ্রেফতার ৬ জঙ্গিকে রবিবার দিনভর জিজ্ঞাসাবাদ করে উঠে এল একাধিক চাঞ্চল্যকর অভিযোগ। গোয়েন্দারা জানিয়েছেন, হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ রাখত জঙ্গিরা। ওসামা বিন লাদেনকে অনুপ্রেরণা করে পশ্চিমবঙ্গে সন্ত্রাস ছড়ানোর পরিকল্পনা ছিল তাদের। NIA সূত্রের খবর, সব ঠিক থাকলে আগামিকাল ৬ জনকে নিয়ে দিল্লি রওনা দেবেন গোয়েন্দারা। 

শুক্রবার রাতে মুর্শিদাবাদের একাধিক জায়গায় তল্লাশি চালিয়ে ৬ সন্দেহভাজন জঙ্গিকে গ্রেফতার করে NIA. তাদের কলকাতা এনে রাখা হয় বিধাননগর দক্ষিণ থানায়। রবিবার সকালে সেখান থেকে ৬ জঙ্গিকে নিয়ে যাওয়া হয় NIA দফতরে। সেখানে দিনভর তাঁদের দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করেন গোয়েন্দারা। 

সূত্রের খবর, কী ভাবে তারা জঙ্গি নিয়োগ করত। কী ভাবে জোগাড় হত টাকা। কাকেই বা টাকা দিত জঙ্গিরা সমস্ত কিছু জানার চেষ্টা চলছে। 

এরই মধ্যে জিজ্ঞাসাবাদে জানা গিয়েছে, গজবাওয়া এ তুল হিন্দ নামে একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ রাখত জঙ্গিরা। সেই গ্রুপে মোট ২২ জন সদস্য ছিলেন। গ্রেফতার হতে পারেন এই আশঙ্কায় সেই গ্রুপ ডিলিট করে দিয়েছে কোনও জঙ্গি। তবে ওই গ্রুপে হওয়া কথোপকথন উদ্ধার করার চেষ্টা চালাচ্ছেন গোয়েন্দারা।

শনিবার ধৃতদের বিধাননগর মহকুমা আদালতে পেশ করে ট্রানজিট রিমান্ডে হেফাজতে নেয় NIA। তার পর তাদের শারীরিক পরীক্ষা হয়েছে। সূত্রের খবর, করোনা পরীক্ষার জন্য জঙ্গিদের লালারসের নমুনা নেওয়া হয়েছে। সম্ভবত সোমবার তার রিপোর্ট আসবে। তার পর ৬ জঙ্গিকে নিয়ে দিল্লি রওনা দেবেন NIA-র গোয়েন্দারা। 

ওদিকে রবিবার বিকেলে তথ্য আদানপ্রদানের জন্য NIA-র দফতে যান CID ও কলকাতা পুলিসের STF-এর আধিকারিকরা। তবে কী তথ্য আদান প্রদান হয়েছে তা জানা যায়নি।

 

বন্ধ করুন