বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মাটি হল জন্মদিনের পার্টি, গো ব্যাক স্লোগান শুনে গাড়ি ঘুরিয়ে পালালেন নির্মল মাঝি
নির্মল মাঝি। ফাইল ছবি

মাটি হল জন্মদিনের পার্টি, গো ব্যাক স্লোগান শুনে গাড়ি ঘুরিয়ে পালালেন নির্মল মাঝি

  • হাসপাতাল সূত্রের খবর, প্রোগ্রেসিভ ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের ব্যানারে ইডেন হাসপাতালে নির্মলবাবুর জন্মদিন পালনের ব্যবস্থা হয়েছিল। বেলুন – কেক, আয়োজন ছিল সব কিছুর।

রাজ্যের অঘোষিত স্বাস্থ্যমন্ত্রী তিনি। তাঁর কথায় চন্দ্র-সূর্য ওঠে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে। এহেন নির্মল মাজিকে জন্মদিনে তাঁর ডেরা থেকে ফিরতে হল ‘গো ব্যাক’ স্লোগান শুনে। বুধবার এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে যার পর নাই উৎসাহিত জুনিয়র ডাক্তাররা। নির্মলবাবুর প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

SSKM-এ কুকুরের ডায়ালিসিসের ব্যবস্থা ও টলিসিজুমাবকাণ্ডের মতো কালজয়ী কীর্তির মালিক নির্মলবাবুর জন্মদিন ছিল বুধবার। রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ করে জন্মদিন পালনের জন্য কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন বহু চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য আধিকারিককে। এদিন বেলা ২.৩০ মিনিট নাগাদ তিনি হাসপাতালে পৌঁছতেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি হাতে নিয়ে ‘গো ব্যাক’ স্লোগান দিতে থাকেন জুনিয়র ডাক্তাররা। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে গাড়ি ঘুরিয়ে হাসপাতাল ছাড়েন তিনি।

হাসপাতাল সূত্রের খবর, প্রোগ্রেসিভ ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের ব্যানারে ইডেন হাসপাতালে নির্মলবাবুর জন্মদিন পালনের ব্যবস্থা হয়েছিল। বেলুন – কেক, আয়োজন ছিল সব কিছুর। চিকিৎসকদের একাংশের দাবি, নিজের মহিমা প্রচারে হাসপাতালের ভাবমূর্তি নষ্ট করছেন নির্মলবাবু। দিনের পর দিন এটা মেনে নেওয়া যায় না। এটা করোনা হাসপাতাল। এর আগে হাসপাতালে লাউড স্পিকার বাজিয়ে রাখিবন্ধন অনুষ্ঠান পালন করেছেন তিনি। এবার জন্মদিন পালন করতে এসেছেন। করোনা হাসপাতালটা জন্মদিন পালনের জায়গা না কি?

আরেক চিকিৎসকের কথায়, প্রোগ্রেসিভ ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের তরফে যে ভাবে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে হুলিয়া জারি করা হয়েছিল তা মেনে নেওয়া যায় না। ওই হুলিয়া দেখে ভক্তিতে না হলেও ভয়ে অনেকেই সেখানে হাজির হয়েছিলেন। তাতে হাসপাতালের পরিষেবায় প্রভাব পড়েছে।

 

বন্ধ করুন