বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কোথায় যাত্রী নিয়ন্ত্রণ? নয়া বছরের প্রথম সোমবারই ফিরল লোকালে ভিড়ের পুরোনো চিত্র
নয়া বছরের প্রথম সোমবারই ফিরল লোকালে ভিড়ের পুরোনো চিত্র

কোথায় যাত্রী নিয়ন্ত্রণ? নয়া বছরের প্রথম সোমবারই ফিরল লোকালে ভিড়ের পুরোনো চিত্র

  • সরকারের তরফে ঘোষণা করা হয়েছিল যে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে লোকাল ট্রেন চলবে আজ থেকে৷ সেই ঘোষণার পরই প্রশ্ন উঠেছিল, ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ন্ত্রণের বিষয়টি কে খতিয়ে দেখবে?

বর্ষবরণের পরপরই করোনার বাড়বাড়ন্তে নাজেহাল হয়ে কড়া বিধিনিষেধ জারি করার কথা ঘোষণা করেছেন রাজ্যের মুখ্যসচিব৷ গতকালই রাজ্য সরকারের তরফে ঘোষণা করা হয়েছিল যে ভোর পাঁচটা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে লোকাল ট্রেন চলবে৷ সেই ঘোষণার পরই প্রশ্ন উঠেছিল, ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ন্ত্রণের বিষয়টি কে খতিয়ে দেখবে? আর এই প্রশ্নের মাঝেই আজকে হাওড়া থেকে শিয়ালদায় দেখা গেল পুরোনো ভিড়ের চিত্র৷ সরকারি নির্দেশিকাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়েই লোকাল ট্রেনে ভিড় দেখা গিয়েছে সেই আগের দিনগুলির মতো৷

রাজ্য সরকারি নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করা যে সম্ভব নয়, তা দেখা গিয়েছিল গতবারও৷ সেবারও কোভিড বিধি মেনে সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে লোকাল ট্রেন চালানোর কথা বলা হলেও তা মানা হয়নি৷ আর এবারও নতুন বছরের প্রথম কর্মদিবসে হাওড়া থেকে শিয়ালদা, সর্বত্র দেখা গেল ব্যস্ততা৷ কিন্তু দেখা গেল না কোভিড বিধি মানার কোনও তত্পরতা৷ ট্রেনে যাত্রী নিযন্ত্রণ যেমন দেখা যায়নি, তেমনই দেখা যায়নি স্টেশনগুলিতে শারীরিক দূরত্বের বিধি৷ এতকিছুর পরও বহু যাত্রীর মুখে মাস্কেরও দেখা মেলেনি৷

এদিকে রেলের বক্তব্য হল, পঞ্চাশ শতাংশ যাত্রীকে মেপে মেপে ট্রেনের কামরায় তোলার পরিকাঠামো তাদের হাতে মজুত নেই৷ কাজেই যাত্রীদের সচেতন হওয়ার অনুরোধ করা ছাড়া তাদের পক্ষে এই বিষয়ে অন্তত আর কিছু করার নেই ৷ তবে রেলকর্মী ও আধিকারিকদের দাবি, মাস্ক ছাড়া কাউকেই স্টেশনে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না৷ তবে এই নজরদারিতেও রয়েছ ফাঁক৷ এই পরিস্থিতিতে ঘোষণাই সাড়, কোভিড বিধি মানার বালাই নেই নিত্যযাত্রীদের মধ্যে৷

বন্ধ করুন