বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'CU'তে স্নাতকোত্তর আসন সংখ্যা বাড়ানো যাবে না' জানিয়ে দিলেন উপাচার্য
কলেজে অনলাইনে আবেদন শুরু অগস্টে, ভরতি সেপ্টেম্বরে, জানাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

'CU'তে স্নাতকোত্তর আসন সংখ্যা বাড়ানো যাবে না' জানিয়ে দিলেন উপাচার্য

  • এনিয়ে মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্যাকাল্টি কাউন্সিলের বৈঠক হয়েছে। সেখানে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কলকাতা বিশ্বিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তরে আসন সংখ্যা বাড়ানোর দাবিতে গত সোমবার বিক্ষোভ করেছিল বাম ছাত্র সংগঠন। তাদের দাবি ছিল অবিলম্বে আসন বাড়াতে হবে। তা না হলে তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবে। এর পাল্টা গতকাল মঙ্গলবার বিক্ষোভ করে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ। তবে স্নাতকোত্তরে আসন সংখ্যা বাড়ানো সম্ভব নয় বলেই জানিয়ে দিলেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী।

এনিয়ে মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্যাকাল্টি কাউন্সিলের বৈঠক হয়েছে। সেখানে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এদিনের বৈঠক হয়েছে মূলত ভার্চুয়ালি। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যাচ্ছে, বর্তমানে যে পরিকাঠামো রয়েছে সেই জায়গায় আসন সংখ্যা কোনওভাবে বাড়ানো সম্ভব নয়। কারণ আসন বাড়ানো হলে সে ক্ষেত্রে ক্লাসঘর বা ল্যাবরেটরি সঙ্কুলান হয়ে যাবে। এর ফলে সমস্যা তৈরি হবে বলে মনে করছেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। যদিও এর আগেও বাম ছাত্র সংগঠন স্নাতকোত্তরে আসন সংখ্যা বাড়ানোর দাবি জানিয়েছিল। সেই সময় উপাচার্য আসন সংখ্যা বাড়ানোর আশ্বাস দিয়েছিলেন। তারপরেও প্রতিশ্রুতিমত আসন সংখ্যা না বাড়ানোর প্রতিবাদে সোমবার কলেজ স্ট্রিটের কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের গেট বন্ধ রেখে বিক্ষোভ করে বাম ছাত্র সংগঠন।

অন্যদিকে, এই ঘটনার প্রতিবাদে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক,শিক্ষা কর্মী এবং কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় স্টুডেন্টস ইউনিটি যৌথভাবে কলেজস্ট্রিট অবরোধ করেন। তারা অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল দ্বার খুলে দেওয়ার দাবি জানান। সোমবার যেভাবে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের মূল দ্বার বন্ধ রেখে অবরোধ চালানো হয় তার নিন্দা করেছেন শিক্ষক শিক্ষা কর্মী।

এদিকে, মঙ্গলবার তৃণমূল ছাত্র পরিষদ এসএফআইয়ের বিক্ষোভ প্রতিবাদের পাল্টা বিক্ষোভ করে। তাদের অভিযোগ ছিল, এসএফআইয়ের বিক্ষোভের শিক্ষামন্ত্রীকে অসম্মান করা হয়েছে। কলেজ স্কোয়ারে তার স্কুল খোলার দাবিতে বিক্ষোভ করে। দুটি ছাত্রসংগঠন মুখোমুখি হওয়ায় বেশ কিছুক্ষণ উত্তেজনা তৈরি হয়।

বন্ধ করুন