বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > দক্ষিণেশ্বর–নোয়াপাড়া মেট্রো লাইনের ধারেই নামল ধস, ফাটল ধরল সেতুর পিলারে
দক্ষিণেশ্বর–নোয়াপাড়া মেট্রো লাইনে ধস। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
দক্ষিণেশ্বর–নোয়াপাড়া মেট্রো লাইনে ধস। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

দক্ষিণেশ্বর–নোয়াপাড়া মেট্রো লাইনের ধারেই নামল ধস, ফাটল ধরল সেতুর পিলারে

  • অফিসে টাইমে লাইনের পাশে এই ধস দেখা দেয়। তাতে থমকে যায় মেট্রো।

করোনাভাইরাসের জেরে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল মেট্রো রেল। সম্প্রতি পরিস্থিতি খানিকটা উন্নতি হওয়া্য় শুরু হয়েছে শহরের অন্যতম লাইফলাইন মেট্রো চলাচল। আর তার মধ্যেই ঘটে গেল বিপত্তি। শুক্রবার দক্ষিণেশ্বর–নোয়াপাড়া মেট্রো লাইনে ধস নামতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। অফিসে টাইমে লাইনের পাশে এই ধস দেখা দেয়। তাতে থমকে যায় মেট্রো। প্রায় ২০০ মিটার জায়গা জুড়ে ধস থাকায় ধীর গতিতে চলাচল করছে মেট্রো।

ইতিমধ্যেই ক্ষতিগ্রস্থ অংশ ত্রিপল দিয়ে ঢাকা হয়েছে। সেই জায়গাটি বেঁধে পর্যন্ত রাখা হয়েছে। ক্ষতি হয়েছে বেলঘরিয়া এক্সপ্রেসওয়ের সিসিআর সেতুর পিলারও। সেখানে চলছে ধস মেরামতের কাজ। অতি সম্প্রতিই উদ্বোধন হয়েছিল দক্ষিণেশ্বর–নোয়াপাড়া মেট্রো লাইনের। সেখানেরই কয়েক মিটার দূরে ধস নামে। ইতিমধ্যেই সারাইয়ের কাজে লেগে পড়েছেন শতাধিক শ্রমিক।

জানা গিয়েছে, বর্ষার মরসুমে যাতে ক্ষতি আর না হয় তাই ত্রিপল দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়েছে বিস্তীর্ণ এলাকা। তবে মেট্রোর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, মেট্রো চলাচলে কোনও অসুবিধে হচ্ছে না। শনিবার রাতে প্রথম চোখে পড়ে এই ধস। এখন বেহাল অবস্থায় বেলঘরিয়া এক্সপ্রেসওয়ে। তার মধ্যে এই ফাটল দেখা গিয়েছে। তবে পিলারে কোনও কাজ এখনও পর্যন্ত শুরু হয়নি।

উল্লেখ্য, শহর কলকাতায় মেট্রো রেকের সংখ্যা এবার বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কলকাতা মেট্রো কর্তৃপক্ষ। ২২০টির পরিবর্তে সোমবার থেকে শুক্রবার অফিস টাইমে চলবে ২২৮টি ট্রেন। যাত্রীদের সুবিধার জন্য দুটি মেট্রোর সময়ের ব্যবধানও কমানো হচ্ছে। কোভিড–বিধি মেনে ৫০ শতাংশ যাত্রী দিয়ে মেট্রো চালানোর অনুমতি সরকার।

সোমবার থেকে শুক্রবার স্বাভাবিক নিয়মেই চলে মেট্রো রেল। শনিবার শুধুমাত্র স্টাফ স্পেশাল, আর রবিবার বন্ধ থাকে পরিষেবা। এবার বিজ্ঞপ্তি জারি মেট্রো কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দিয়েছে, ১৩ অগস্ট থেকে চলবে আরও চলবে ৮ অতিরিক্ত মেট্রো। অফিসটাইমে যাত্রীদের ভিড় সবচেয়ে বেশি থাকে। তাই তখন দুটি মেট্রোর মধ্যে সময়ে ব্যবধান ৭ মিনিট থেকে কমিয়ে করা হল ৫ মিনিট।

বন্ধ করুন