বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > এক লাফে ১,৮০০! দশ দিনে পশ্চিমবঙ্গে দ্বিগুণের বেশি বাড়ল কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা
কলকাতার এক কনটেনমেন্ট জোনে স্বাস্থ্যকর্মীরা।
কলকাতার এক কনটেনমেন্ট জোনে স্বাস্থ্যকর্মীরা।

এক লাফে ১,৮০০! দশ দিনে পশ্চিমবঙ্গে দ্বিগুণের বেশি বাড়ল কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা

  • স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া তথ্য অনুসারে রাজ্যের মোট কনটেনমেন্ট জোনের প্রায় ৬০ শতাংশ কলকাতায়। সেখানে জুনের প্রথম ১০ দিনে কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বেড়েছে প্রায় তিন গুণ।

রাজ্যে করোনা রোগীর সংখ্যা যত বাড়ছে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে কনটেনমেন্ট জোন। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া তথ্য অনুসারে পশ্চিমবঙ্গে মোট কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা ১,৮০৬। মাসের শুরুতে যা ছিল ৮৪৪। অর্থাৎ ১০ দিনে দ্বিগুণের বেশি বেড়েছে কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা। তবে এজন্য রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে কনটেনমেন্ট জোন চিহ্নিত করার রাজ্য সরকারের নতুন নীতিকেও দায়ী করছেন অনেকে। 

স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া তথ্য অনুসারে রাজ্যের মোট কনটেনমেন্ট জোনের প্রায় ৬০ শতাংশ কলকাতায়। সেখানে জুনের প্রথম ১০ দিনে কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বেড়েছে প্রায় তিন গুণ। ৩৫১ থেকে বেড়ে তা হয়েছে ১,০০৯টি। এছাড়া অন্যান্য জেলাতেও কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বেড়েছে রকেট গতিতে। 

কলকাতায় কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য রাজ্য সরকারের নতুন নীতিকে দায়ী করা হলেও জেলায় ভিনরাজ্য ফেরত শ্রমিকদের মধ্যে সংক্রমণকে দায়ী করা হচ্ছে। এছাড়া উত্তর ২৪ পরগনায় কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা ১৪৪ থেকে বেড়ে ২১৯ হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বেড়েছে কিছু দিন আগে পর্যন্ত গ্রিন জোনে থাকা পূর্ব বর্ধমান, বাঁকুড়া, পুরুলিয়ার মতো জেলাতেও। 

রাজ্য সরকারের কনটেনমেন্ট জোন চিহ্নিত করার নতুন নীতি অনুসারে শুধুমাত্র যে আবাসনে করোনা রোগীর সন্ধান মিলবে বিধিনিষেধ জারি হবে শুধু সেখানেই। রাস্তা বা এলাকাকে কনটেনমেন্ট জোনের আওতায় ফেলা হবে না। এর ফলে কলকাতায় কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বেড়েছে কয়েকগুণ। রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, কনটেনমেন্ট জোন ও বাফার জোনে সম্পূর্ণ লকডাউন কার্যকর হবে। 

 

বন্ধ করুন