বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > হাঁসখালি-সহ একের পর এক ধর্ষণকাণ্ডের জের? বদলি রানাঘাটের এসপি সায়ক দাস
সায়ক দাস। ফাইল ছবি

হাঁসখালি-সহ একের পর এক ধর্ষণকাণ্ডের জের? বদলি রানাঘাটের এসপি সায়ক দাস

  •  নদিয়ার রানাঘাট পুলিশ জেলার বিভিন্ন জায়গা থেকে একের পর এক ধর্ষণ ও গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবারই গাংনাপুর গণধর্ষণে মৃতার দেহ কবর থেকে তুলে ময়না তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। তার জেরেই কি বদলি হলেন SP?

রাজ্য পুলিশে বড়সড় রদবদল ঘোষণা হল নবান্ন থেকে। মঙ্গলবার রাজ্যের একাধিক পুলিশ আধিকারিককে বদলি করা হয়েছে নতুন পদে। এর মধ্যে রয়েছেন ডায়মন্ড হারবার ও বারুইপুর পুলিশ জেলার পুলিশ সুপাররাও।

কলতাতা পুলিশের ডিসি ডিডি দেবস্মিতা দাসকে বিধাননগর কমিশনারের ডিসি হেডকোয়ার্টারস করা হয়েছে। মালদার পুলিশ সুপার অমিতাভ মাইতিকে গোয়েন্দা বিভাগে বদলি করা হয়েছে। বারুইপুরের এসপি বৈভব তিওয়ারিকে বাঁকুড়ার এসপি করা হয়েছে। বারুইপুর পুলিশ জেলার এসপি করা হয়েছে মিসেস পুষ্পাকে।

ডায়মন্ড হারবারের এসপি অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়কে রানাঘাট পুলিশ জেলার এসপি করা হয়েছে। রানাঘাটের এসপিকে সিআইডিতে পাঠানো হয়েছে। বাঁকুড়ার এসপি ধৃতিমান সরকারকে ডায়মন্ড হারবারের এসপি করা হয়েছে। প্রবীণ প্রকাশকে কলকাতা পুলিশের ডিসি সাইবার ক্রাইম পদে আনা হয়েছে।

নবান্ন সূত্রে জানানো হয়েছে, রুটিন বদলির নির্দেশিকা জারি হয়েছে। একই পদে নির্দিষ্ট সময় অতিক্রান্ত হওয়ায় বদলি করা হয়েছে এই পুলিশ আধিকারিকদের।

বলে রাখি, সম্প্রতি রাজ্যের একাধিক জেলায় গণহত্যা ও ধর্ষণের অভিযোগ ওঠায় আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। রাজ্যে ৩৬৫ ধারা জারির দাবি তুলছে বিরোধীরা। এর মধ্যে অন্যতম হাঁসখালি গণধর্ষণকাণ্ড। এই ঘটনায় ইতিমধ্যে পুলিশের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ উঠেছে। যার জেরে সিবিআইকে তদন্তভার দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। সেই জন্যই কি বদলি হলেন রানাঘাটের এসপি সায়ক দাস?

 

বন্ধ করুন