বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Maheshtala: অভিমানে ৪ তলার কার্নিশে উঠে গেলেন ব্যক্তি, ৩ ঘণ্টার চেষ্টায় উদ্ধার করল দমকল
মইয়ের সাহায্যে নামানো হচ্ছে মদ্যপ ব্যক্তিকে।

Maheshtala: অভিমানে ৪ তলার কার্নিশে উঠে গেলেন ব্যক্তি, ৩ ঘণ্টার চেষ্টায় উদ্ধার করল দমকল

  • পুলিশ এবং পারিবারিক সূত্রে জানা গিয়েছে, মোল্লারগেটের ওই এলাকায় চারতলা বাড়িতে সপরিবারে থাকেন জি কুমার রাও। তিনি প্রতিদিন মদ্যপান করেন। এ নিয়ে পরিবারে অশান্তি লেগেই থাকে তাকে বাধা দেওয়া হলেও কাজ হয়নি। গতকাল রাতেও তিনি মদ্যপান করেন।

প্রতিদিনই মদের নেশায় বুঁদ হয়ে থাকেন বাবা। মদ কেনার জন্য ছেলের দোকানের সরঞ্জামও বিক্রি করে দেন। তার প্রতিবাদ করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যেতে বলেছিল ছেলে। আর সেই অভিমানে মাঝ রাতে চারতলার কার্নিশে উঠে পড়লেন বাবা। ঘটনাটি দক্ষিণ ২৪ পরগনার মহেশতলা থানার মোল্লারগেটের ২০ ফুট এলাকার। ওই ব্যক্তির নাম জি কুমার রাও। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। অবশেষে তিন ঘণ্টার চেষ্টায় দমকল কর্মীরা তাকে উদ্ধার করেন। কিছুদিন আগেই মল্লিকবাজারের একটি হাসপাতালের ৮ তলা থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছিলেন এক রোগী। এদিন সেই ঘটনার স্মৃতি উসকে দিল মোল্লার গেটের ঘটনা।

পুলিশ এবং পারিবারিক সূত্রে জানা গিয়েছে, মোল্লারগেটের ওই এলাকায় চারতলা বাড়িতে সপরিবারে থাকেন জি কুমার রাও। তিনি প্রতিদিন মদ্যপান করেন। এ নিয়ে পরিবারে অশান্তি লেগেই থাকে তাকে বাধা দেওয়া হলেও কাজ হয়নি। গতকাল রাতেও তিনি মদ্যপান করেন। সম্প্রতি নেশা করার জন্য ছেলের দোকানের বেশ কিছু সামগ্রী বিক্রি করেছিলেন ওই ব্যক্তি। আর তাতেই ক্ষুব্ধ হয়ে বাড়ি থেকে চলে যেতে বলেছিল ছেলে। সেই অভিমানে মদ্যপ অবস্থায় বাড়ির চার তলার কার্নিশে উঠে পড়েন তিনি।

পরিবারের সদস্যদের চিৎকার চেঁচামেচি শুনে প্রতিবেশীরাও সেখানে ছুটে আসেন। তারাও জি কুমার রাওকে নেমে আসার জন্য অনুরোধ করেন। তখন রাত ২ টো বাজে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। এলাকায় প্রচুর মানুষের ভিড় জমে। কিন্তু, অনুরোধ সত্ত্বেও তিনি নিচে নেমে না আসায় পুলিশে খবর দেয় পরিবার। কিছুক্ষণের মধ্যে পৌঁছয় পুলিশ ও দমকল। অবশেষে মইয়ের সাহায্যে ওই ব্যক্তিকে তিন ঘণ্টার চেষ্টায় নিচে নামিয়ে আনেন দমকল কর্মীরা।

বন্ধ করুন