বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > জোড়াবাগান খুনে গ্রেফতার আরও ১
জোড়াবাগানে এই বহুতলেই উদ্ধার হয়েছিল নাবালিকার দেহ। 
জোড়াবাগানে এই বহুতলেই উদ্ধার হয়েছিল নাবালিকার দেহ। 

জোড়াবাগান খুনে গ্রেফতার আরও ১

  • ধৃতের নাম রণবীর তাঁতি ওরফে রঘুবীর বলে জানিয়েছেন গোয়েন্দারা। ঘটনার দিন রাজ কুমারের সঙ্গে সেও নাবালিকার ওপরে নির্যাতন করেছিল বলে জানিয়েছেন গোয়েন্দারা।

কলকাতার জোড়াবাগানে নাবালিকাকে ধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় আরও ১ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করল পুলিশ। ধৃতের নাম রণবীর তাঁতি ওরফে রঘুবীর বলে জানিয়েছেন গোয়েন্দারা। ঘটনার দিন রাজ কুমারের সঙ্গে সেও নাবালিকার ওপরে নির্যাতন করেছিল বলে জানিয়েছেন গোয়েন্দারা। 

জানা গিয়েছে ঘটনার রাতে রাজকুমারের সঙ্গে বসে মদ খাচ্ছিল রঘুবীরও। রাজকুমার শিশুটিকে খাবারের লোভ দেখিয়ে ঘরে নিয়ে এলে তার ওপর নির্যাতন চালায় ওই যুবকও। তবে শিশুটিকে খুন করায় তার হাত রয়েছে কি না তা এখনো নিশ্চিত করে বলতে পারেননি তদন্তকারীরা। 

গোয়েন্দাদের দাবি, জেরায় অভিযুক্ত রাজকুমার জানিয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় নিজের ঘরে বসে মদ ও বিরিয়ানি খাচ্ছিল রাজকুমার ও রঘুবীর। সঙ্গে মোবাইল ফোনে চাইল্ড পর্নগ্রাফি দেখছিল তারা। তখনই সেখানে এসে পড়ে শিশুটি। তাকে খাবারের লোভ দেখিয়ে ঘরের ভিতরে নিয়ে যায় লম্বু। এর পর মাদক মেশানো খাবার খাইয়ে তাকে অচেতন করে সে। 

শিশুটি অচেতন হয়ে পড়লে তাকে যৌন নির্যাতন করে রাজকুমার ও রঘুবীর। নির্যাতনের চোটে শিশুটির ৪টি দাঁত ভেঙে যায়। ছিঁড়ে যায় মাথার চুল। গোয়েন্দাদের ধারণা, নির্যাতনের সময় সংজ্ঞা ফিরে আসায় শিশুটি বাধা দেয়। তখনই মত্ত অবস্থায় থাকা ২ অভিযুক্ত আরও আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে। 

অভিযোগ, যৌন নির্যাতনের পর শিশুটিকে গলা টিপে খুন করে রাজকুমার। তার পর মৃত্যু নিশ্চিত করতে তার গলার নলি কেটে দেহ রেখে আসে তিন তলায় সিঁড়ির ওপর। আদালতের নির্দেশে কলকাতা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে রাজকুমার। এরই মধ্যে অভিযুক্তের অপরাধের রেকর্ড জানতে গিরিডি পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে কলকাতা পুলিশ। সেখানেই বাড়ি অভিযুক্তের। 

 

বন্ধ করুন