বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > রাজ্যে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে মাত্র ১৮ শতাংশ হাসপাতালে ভর্তি, জানালেন মুখ্যসচিব
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

রাজ্যে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে মাত্র ১৮ শতাংশ হাসপাতালে ভর্তি, জানালেন মুখ্যসচিব

  • সঙ্গে তিনি বলেন, পশ্চিমবঙ্গে বর্তমানে করোনা রোগীদের জন্য ১১,৫০০-র বেশি শয্যা রয়েছে। যার ৩৯ শতাংশ শয্যায় মাত্র রোগী রয়েছেন।

পশ্চিমবঙ্গে এই মুহূর্তে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে মাত্র ১৮ শতাংশ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। বৃহস্পতিবার নবান্নে এমনটাই জানালেন রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা। মুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতে একথা জানান তিনি। 

এদিন মুখ্যসচিব বলেন, পশ্চিমবঙ্গে এই মুহূর্তে ২২,৯০০ জন করোনা আক্রান্ত। তার মধ্যে ৪১৩৩ জনকে মাত্র হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে। অর্থাৎ পশ্চিমবঙ্গে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে মাত্র ১৮ শতাংশ হাসপাতালে ভর্তি। 

মুখ্যসচিব আরো বলেন, পশ্চিমবঙ্গে করোনায় মৃত্যুর হার মাত্র ২.২ শতাংশ। আর মৃতদের প্রায় ৮৭ শতাংশ কো-মর্বিডিটির শিকার ছিলেন। অর্থাৎ করোনার উপসর্গ দেখা দিলে সময় নষ্ট না করে কেউ হাসপাতালে এলে তার ভয় পাওয়ার কারণ নেই। 

সঙ্গে তিনি বলেন, পশ্চিমবঙ্গে বর্তমানে করোনা রোগীদের জন্য ১১,৫০০-র বেশি শয্যা রয়েছে। যার ৩৯ শতাংশ শয্যায় মাত্র রোগী রয়েছেন। বাকিটা খালি। সরকার ক্রমশ করোনা পরিকাঠামো তৈরির ওপর নজর দেওয়ায় রোগীর সংখ্যা বাড়লেও হাসপাতালে শয্যা খালি থাকার হার কমেনি। 

মুখ্যসচিব এদিন করোনা সংক্রান্ত যাবতীয় সহায়তার জন্য একটি হেল্পলাইন নম্বর জানান। তিনি বলেন, এই টোল ফ্রি নম্বরে ফোন করে করোনা সংক্রান্ত যাবতীয় সাহায্য চাওয়া যেতে পারে। চাওয়া যেতে পারে অ্যাম্বুল্যান্সও। নম্বরটি হল ১৮০০ ৩১৩ ৪৪৪ ২২২।

পশ্চিমবঙ্গে রোজই বাড়ছে দৈনিক করোনা রোগীর সংখ্যা। বাড়ছে দৈনিক মৃত্যুও। সরকারের দাবি, এখনো করোনা পরিস্থিতি তাদের নিয়ন্ত্রণে। বিভিন্ন রাজ্যের তুলনায় এখনো অনেক ভাল পরিস্থিতি পশ্চিমবঙ্গে।

একই সঙ্গে মুখ্যসচিব দাবি করেন, পশ্চিমবঙ্গে নির্দিষ্ট সময়ের আগেই করোনা পরীক্ষা ও শয্যা সংখ্যা বাড়ানোর লক্ষ্যমাত্রা ছোঁয়া গিয়েছে।  

 

বন্ধ করুন