ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

ভিনরাজ্যে থাকা বাংলার শ্রমিকরা খেতে পায়নি, ঘুমাতে পারেনি, অভিযোগ করলেন মমতা

  • পশ্চিমবঙ্গে প্রায় ৪০ শতাংশ হিন্দিভাষী, দাবি মুখ্যমন্ত্রীর 

ভিনরাজ্যে আটকে পড়া পশ্চিমবঙ্গের শ্রমিকদের প্রতি যথেষ্ট নজর দিচ্ছে না বিভিন্ন রাজ্য সরকার। সোমবার নবান্নে এমনই অভিযোগ করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন বিভিন্ন রাজ্যের প্রতি অভিযোগের সুরে বলেন, পশ্চিমবঙ্গ সমস্ত আটকে পড়া শ্রমিকদের খেয়াল রাখলেও পশ্চিমবঙ্গে শ্রমিকরা বহু জায়গায় খেতে পাচ্ছেন না।

সোমবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘১ মে বলা হয়েছিল, যে রাজ্যে যে থাকবে সেই রাজ্য তার দায়িত্ব নেবে। আমরা দায়িত্ব নিয়েছি। অন্য রাজ্যে যারা রয়েছে তারা খেতে পাচ্ছে না। আরেকটা দায়িত্ব ছিল, আমার রাজ্যে যদি কেউ থেকে যায় তাকে আমি পাঠানোর ব্যবস্থা করব। তাহলে অন্য রাজ্যে যে আছে, তাদের আমার রাজ্যে পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব তাদের। আমরা এটা করছি, কিন্তু ওরা এটা করছে না। আমরা ইতিমধ্যে অনেককে পৌঁছে দিয়েছি।’ 

বিভিন্ন রাজ্যের প্রতি অভিযোগ করে মমতা বলেন, ‘কাউকে কেউ দেখেও না। আমাদের এখানে আমরা সবাইকে সাধ্যমতো চেষ্টা করেছি। ভাবিনি, আমার বা ওদের। আমরা সবাইকে মনে করি এদেশের লোক, নাগরিক। অন্যান্য অনেক জায়গায় খেতে দেয়নি। পায়নি! ভাল করে থাকতে পায়নি। ভাল করে ঘুমাতে পারেনি। যারা মাইগেন্ট ওয়ার্কার। খুব কষ্ট হয়েছে। অনেকে মারা গেছে। আমি তাদের অনুরোধ করব, ধৈর্য হারাবেন না। একটু ধৈর্য ধরুন।’

যদিও আটকে পড়া শ্রমিকদের একাংশের অভিযোগ, বিভিন্ন রাজ্য প্রবাসী শ্রমিকদের ফিরিয়ে নিলেও পশ্চিমবঙ্গ সরকার তেমন গরজ দেখাচ্ছে না। সম্প্রতি বিরোধীরা এই নিয়ে চাপ তৈরি করার পর কিছু ট্রেন চালানোর অনুমতি দিয়েছে রাজ্য সরকার। তাও প্রয়োজনের তুলনায় নগন্য। উলটে প্রবাসী শ্রমিকদের ক্ষোভ প্রশমণে ট্রেনের ভাড়া পুরোটাই দিয়ে দেওয়ার ঘোষণা করেছেন মমতা।  

 

বন্ধ করুন