বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মার্চ মাসে জোড়া উপনির্বাচন বাংলায়?‌ নির্বাচন কমিশন জোর প্রস্তুতি নিচ্ছে
পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য নির্বাচন কমিশনের দফতর। 
পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য নির্বাচন কমিশনের দফতর। 

মার্চ মাসে জোড়া উপনির্বাচন বাংলায়?‌ নির্বাচন কমিশন জোর প্রস্তুতি নিচ্ছে

  • এই দুটি নির্বাচন করতে গেলে ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহেই বিজ্ঞপ্তি জারি করতে হবে।

আগামী মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহে আসানসোল লোকসভা এবং বালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচন হতে পারে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এমনই করতে চাইছে নির্বাচন কমিশন বলে সূত্রের খবর। তার আগে অবশ্য চার পুরসভার নির্বাচন রয়েছে। তার মধ্যেও পড়ছে আসানসোল। একদিকে বিজেপির সাংসদ পদ ছেড়ে দিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়। অন্যদিকে রাজ্য মন্ত্রিসভার শীর্ষ মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় প্রয়াত হয়েছেন। ফলে আসন দুটি খালি হয়েছে।

এই দুটি নির্বাচন করতে গেলে ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহেই বিজ্ঞপ্তি জারি করতে হবে। তার প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে বলে নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর। আগামী লোকসভা নির্বাচন ২০২৪ সালে। আর রাজ্যে পরের বিধানসভা নির্বাচন ২০২৬ সালে৷ তাই দুই কেন্দ্রে উপনির্বাচন করিয়ে নিতে চায় নির্বাচন কমিশন৷ এতদিন ফাঁকা রাখতে চাইছে না আসন তাঁরা।

তবে উপনির্বাচন অনেকটাই নির্ভর করছে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির উপর৷ এবার যেমন চার পুরসভার নির্বাচন করোনাভাইরাসের জন্য পিছিয়ে দিতে হয়েছিল। তবে এখন পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে। তাই সিদ্ধান্ত নিতে চায় নির্বাচন কমিশন৷ এই বিষয়ে এখন তাঁরা সরকারিভাবে কোনও কিছু প্রকাশ করেনি। তবে সূত্রের খবর, এই দুই আসনের উপনির্বাচনের প্রস্তুতি চলছে।

উল্লেখ্য, রাজ্যে শেষ কয়েকটি উপনির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস ব্যাপক সাফল্য পেয়েছে। আর বিজেপিতে এখন গৃহযুদ্ধ শুরু হয়েছে। ফলে তৃণমূল কংগ্রেস এখনও এগিয়ে আছে বলেই মনে করা হচ্ছে। তাই প্রস্তুতি নিয়ে রাখছে রাজ্যের শাসকদল। তবে আসানসোলে বিজেপি এখনও শক্তিশালী। তাই সেখানে সংগঠন শক্তিশালী করছে তৃণমূল কংগ্রেস। উত্তরপ্রদেশের শেষ দফার নির্বাচন ৭ মার্চ। তখনই বাংলার জোড়া উপনির্বাচন হতে পারে।

বন্ধ করুন