বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Paresh Adhikary In Nizam Palace: পরেশের কপালে শনির দশা, CBI দফতরে হাজিরার হ্যাটট্রিক তৃণমূল সরকারের মন্ত্রীর
নিজাম প্যালেসে শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারী 

Paresh Adhikary In Nizam Palace: পরেশের কপালে শনির দশা, CBI দফতরে হাজিরার হ্যাটট্রিক তৃণমূল সরকারের মন্ত্রীর

  • CBI Interrogates Paresh Adhikary: মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারীর চাকরির বেনিয়ম মামলায় গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রথম হাজিরা দিয়েছিলেন মন্ত্রী। এরপর গতকাল টানা ৮ ঘণ্টা তিনি ছিলেন সিবিআই দফতরে। এরপর আজকেও মন্ত্রীকে ডাকা হল সিবিআই দফতরে। তলব অনুযায়ী নিজাম প্যালেসে পৌঁছে যান মন্ত্রী।

টানা তৃতীয়দিন নিজাম প্যালেসে সিবিআই দফতরে হাজিরা দিলেন রাজ্যের মন্ত্রী পরেস চন্দ্র অধিকারী। মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারীর চাকরির বেনিয়ম মামলায় গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রথম হাজিরা দিয়েছিলেন মন্ত্রী। এরপর গতকাল টানা ৮ ঘণ্টা তিনি ছিলেন সিবিআই দফতরে। এরপর আজকেও মন্ত্রীকে ডাকা হল সিবিআই দফতরে। তলব অনুযায়ী নিজাম প্যালেসে পৌঁছে যান মন্ত্রী। এদিকে জানা গিয়েছে, মন্ত্রী পরেশ অধিকারীকে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সামনে বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে দু’জনকে।

এদিন পরেশবাবু যখন সিবিআই দফতরে ঢউকছেন, তখন তাঁর হাতে একটি ফাইল দেখা যায়। পরেশ অধিকারীকে ১৪ তলায় অ্যান্টি কোরাপশন শাখার ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানা গিয়েছে। জাান গিয়েছে, তদন্তের জন্য মন্ত্রীর কাছে বেশ কিছু নথি দেখতে চেয়েছিলেন তদন্তকারীরা। সেই নথি নিয়েই সিবিআই দফতরে ঢুকেছেন পরেশ। এর আগে শুক্রবারও তাঁর হাতে একটি ফাইল ছিল। 

এদিকে রাজ্যের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীর মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারীকে চাকরি থেকে বরখাস্তের নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। পাশাপাশি বিগত ৪৩ মাসে অঙ্কিতার পুরো বেতন দুই কিস্তিতে আদালতকে দিতে বলা হয়েছে। এই মামলায় অভিযোগ, এসএসসিতে প্রভাব খাটিয়ে নিয়ম বহির্ভূতভাবে মেয়েকে স্কুলে শিক্ষকের চাকরি করে দিয়েছেন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারী। 

এদিকে রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং রাজ্যের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ চন্দ্র অধিকারীকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করা হতে পারে বলে জানা গিয়েছে। প্রসঙ্গত, পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে আগামী সপ্তাহে ফের তলব করেছে সিবিআই। সেই সময় দুই মন্ত্রীকে মুখোমুখি বসানো হতে পারে বলে জানা যাচ্ছে। তদন্তকারীদের দাবি, পরেশের মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারীর বেআইনি নিয়োগ হিমশৈলের চুড়া মাত্র। এই আবহে ‘বৃহত্তর ষড়যন্ত্রে’র উপর থেকে পর্দা সরাতে পার্থ ও পরেশকে মুখোমুখি বসাতে চায় সিবিআই। এদিকে আজ প্রয়োজনে রাজ্যের শিক্ষাসচিব মণীশ জৈনকেও ডেকে পাঠানো হতে পারে বলে জানা গিয়েছে সিবিআই সূত্রে। 

 

বন্ধ করুন