বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > পার্ক হোটেলের মহিলাদের নামে ঘর বুক করা হত কেন? জবাব খুঁজছেন গোয়েন্দারা
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

পার্ক হোটেলের মহিলাদের নামে ঘর বুক করা হত কেন? জবাব খুঁজছেন গোয়েন্দারা

  • তদন্তে নেমে ১ সপ্তাহ ধরে হোটেলের একাধিক কর্মীকে জেরা করেছেন গোয়েন্দারা। জেরা করেছেন হোটেলের ফ্লোর ম্যানেজার ও ফুড ও বেভারেজ ম্যানেজারকে।

পার্ক হোটেলে করোনাবিধি অমান্য করে পার্টি করার ঘটনার তদন্তে নেমে অন্য গন্ধ পাচ্ছেন তদন্তকারীরা। গোয়েন্দাদের অনুমান, সেখানে চলত দেহব্যবসা। হোটেলের আবাসিকদের যে তালিকা গোয়েন্দাদের হাতে এসেছে তাতে এমনই অনুমান। গোটা ব্যাপারে নিশ্চিত হলে হোটেলের জেনারেল ম্যানেজারকে তলব করেছে লালবাজার।

গত শনিবার মধ্য কলকাতার পার্ক হোটেলে হানা দেয় কলকাতা পুলিশ। তখন সেখানে চলছিল উদ্দাম পার্টি। মদ-গাঁজা কিছুই বাকি ছিল না। অভিযোগ, মহিলাদের নামে ঘর বুক করে সেখানে চলছিল মদ ও গাঁজা সেবন। সেদিন পার্ক হোটেলের ৩ ও ৪ তলা থেকে মোট ৩৭ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তদন্তে নেমে ১ সপ্তাহ ধরে হোটেলের একাধিক কর্মীকে জেরা করেছেন গোয়েন্দারা। জেরা করেছেন হোটেলের ফ্লোর ম্যানেজার ও ফুড ও বেভারেজ ম্যানেজারকে। পার্ক হোটেলে গাঁজা কোথা থেকে এল জানতে সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখছে তারা।

ওদিকে তদন্তে নেমে গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন। পার্ক হোটেলে বিভিন্ন সময় মহিলাদের নামে ঘর বুক করা হত। এমনকী বিদেশি মহিলাদের নামেও ঘর বুক হয়েছে। মহিলাদের নামে ঘর বুক করে সেখানে দেহব্যবসা বা মধুচক্র চলত বলে অনুমান গোয়েন্দাদের। এব্যাপারে নিশ্চিত হতে হোটেলের সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করছেন তাঁরা। সঙ্গে তলব করা হয়েছে হোটেলের জেনারেল ম্যানেজারকে।

এই ঘটনায় ইতিমধ্যে পার্ক হোটেলের ৭টি বারই বন্ধ করে দিয়েছে আবগারি দফতর। লালবাজার সূত্রের খবর, হোটেল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের প্রস্তুতি নিচ্ছে তারা।

 

বন্ধ করুন