বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > প্রিজন ভ্যানে জেলে গেলেন পার্থ, টুলে চেপেও উঠতে পারলেন না, আনা হল ক্রেট
বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠানো হল পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে। (ANI Photo) (Saikat Paul)

প্রিজন ভ্যানে জেলে গেলেন পার্থ, টুলে চেপেও উঠতে পারলেন না, আনা হল ক্রেট

  • দল সমস্ত পদ কেড়ে নিয়েছে। মন্ত্রিত্বও কেড়ে নেওয়া হয়েছে। এরপর জেলে পাঠাল আদালত। তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষও একের পর এক তোপ দাগছেন পার্থকে নিশানা করে। পার্থর বিরুদ্ধে একের পর এক অনিয়মের তথ্য় সামনে আসছে। সব মিলিয়ে ক্রমেই জটিল হয়েছে পরিস্থিতি।

জেলেই যেতে হল প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে। প্রেসিডেন্সি জেলে ১৪দিনের জেল হেফাজতে গেলেন তিনি। কিন্তু প্রিজন ভ্যানে ওঠাতে গিয়ে রীতিমতো কাঠখড় পোড়াতে হল শুক্রবার। ইডি হেফাজতে ওজন কিছুটা কমেছে তাঁর। ১০৮ কেজি ওজনের পার্থকে ভ্যানে তুলতে প্রথমে একটি টুল আনা হয়। কিন্তু এই টুল কি আদৌ মজবুত? সন্দেহ জোরালো হতে থাকে। ততক্ষণে চারপাশে লোক জমে গিয়েছে। সেই ভিড়ের মধ্যে থেকে কেউ একজন পানীয় রাখার প্লাস্টিকের ক্রেট নিয়ে আসেন একটি।

পাশে সরে যায় টুল। এরপর সেই প্লাস্টিকের ক্রেটে পা তোলার চেষ্টা করেন প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী। কিন্তু সেটাও সহজ ছিল না। অগত্যা অন্য কিছু আনার ব্যাপারেও চিন্তাভাবনা শুরু হয়েছে ততক্ষণে। এরপরে সেই ক্রেটের উপরে কোনওরকমে উঠে পড়েন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তারপর প্রিজন ভ্য়ানে। চারপাশ থেকে তখন সাংবাদিকদের প্রশ্ন উড়ে আসছে, জেলে যাওয়ার আগে কিছু বলে যান?

না এদিন আর কিছু বলেননি তিনি। কোনওরকমে প্রিজন ভ্য়ানে উঠে পড়েন। এসি গাড়িতে নয়, একেবার প্রিজন ভ্যানে চাপানো হয় প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীকে। তবে এদিন আগাগোড়া নীরব, বিষন্ন লাগছিল তাকে। নগর দায়রা আদালত থেকে অত্যন্ত ধীর পায়ে তিনি বের হন। দুজনের হাতে ভর দিয়ে তিনি প্রিজন ভ্যানের দিকে এগিয়ে যান। একেবারে বিধ্বস্ত, ভেঙে পড়া পরিস্থিতি।

দল সমস্ত পদ কেড়ে নিয়েছে। মন্ত্রিত্বও কেড়ে নেওয়া হয়েছে। এরপর জেলে পাঠাল আদালত। তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষও একের পর এক তোপ দাগছেন পার্থকে নিশানা করে। পার্থর বিরুদ্ধে একের পর এক অনিয়মের তথ্য় সামনে আসছে। সব মিলিয়ে ক্রমেই জটিল হয়েছে পরিস্থিতি। 

বন্ধ করুন