বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মাস্ক ছাড়া মেট্রো রেলে সফর নয়, যাত্রীদের নজরদারিতে নামানো হচ্ছে আরপিএফ
কলকাতা মেট্রো রেল। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)
কলকাতা মেট্রো রেল। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)

মাস্ক ছাড়া মেট্রো রেলে সফর নয়, যাত্রীদের নজরদারিতে নামানো হচ্ছে আরপিএফ

  • লকডাউনের পর স্মার্ট কার্ড ব্যবহার শুরু হয়েছিল। তখন একরকম ভিড় হচ্ছিল। মাস্কও মুখে লাগানো থাকছিল।

মেট্রো রেল স্বাভাবিক ছন্দে শুরু হতেই উঠল নানা অভিযোগ। আর তার মধ্যে সবচেয়ে বড় অভিযোগ হল, বহু যাত্রীই মুখে মাস্ক না পরে সফর করছেন। তার উপর ভিড় বাড়ছে মেট্রো রেলে। এই পরিস্থিতিতে নিয়ে এবার সচেতনতায় জোর দিতে চলেছে কলকাতা মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ। এবার আর মাস্ক ছাড়া ওঠা যাবে না কলকাতা মেট্রো রেলে। তাই এবার নজরদারি চালাবে আরপিএফ।

লকডাউনের পর স্মার্ট কার্ড ব্যবহার শুরু হয়েছিল। তখন একরকম ভিড় হচ্ছিল। মাস্কও মুখে লাগানো থাকছিল। তারপর ফিরে এলো টোকেনের ব্যবহার। এখন এসেছে স্মার্ট ফোন স্ক্যানারের ব্যবহার। কিন্তু এখন ভিড় বেড়েছে মারাত্মক। এই বিষয়ে কলকাতা মেট্রো রেলের জনসংযোগ আধিকারিক রূপায়ণ মিত্র বলেন, ‘‌সাধারণ যাত্রীদের জন্য খুব শীঘ্রই স্মার্ট ফোন স্ক্যানারের পরিষেবা শুরু করে দেওয়া হবে। প্রাথমিক পর্বে এই পরিষেবা চালু হবে কলকাতার ইস্ট–ওয়েস্ট মেট্রো রেলে। পরবর্তী সময়ে নর্থ সাউথ মেট্রো রেলের জন্যও এই পরিষেবা চালু করা হবে।’‌

মেট্রো রেল স্বাভাবিক ছন্দে শুরু হতেই উঠল নানা অভিযোগ। আর তার মধ্যে সবচেয়ে বড় অভিযোগ হল, বহু যাত্রীই মুখে মাস্ক না পরে সফর করছেন। তার উপর ভিড় বাড়ছে মেট্রো রেলে। এই পরিস্থিতিতে নিয়ে এবার সচেতনতায় জোর দিতে চলেছে কলকাতা মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ। এবার আর মাস্ক ছাড়া ওঠা যাবে না কলকাতা মেট্রো রেলে। তাই এবার নজরদারি চালাবে আরপিএফ।

লকডাউনের পর স্মার্ট কার্ড ব্যবহার শুরু হয়েছিল। তখন একরকম ভিড় হচ্ছিল। মাস্কও মুখে লাগানো থাকছিল। তারপর ফিরে এলো টোকেনের ব্যবহার। এখন এসেছে স্মার্ট ফোন স্ক্যানারের ব্যবহার। কিন্তু এখন ভিড় বেড়েছে মারাত্মক। এই বিষয়ে কলকাতা মেট্রো রেলের জনসংযোগ আধিকারিক রূপায়ণ মিত্র বলেন, ‘‌সাধারণ যাত্রীদের জন্য খুব শীঘ্রই স্মার্ট ফোন স্ক্যানারের পরিষেবা শুরু করে দেওয়া হবে। প্রাথমিক পর্বে এই পরিষেবা চালু হবে কলকাতার ইস্ট–ওয়েস্ট মেট্রো রেলে। পরবর্তী সময়ে নর্থ সাউথ মেট্রো রেলের জন্যও এই পরিষেবা চালু করা হবে।’‌|#+|

কিভাবে মিলবে এই পরিষেবা?‌ এই পরিষেবা পেতে হলে যাত্রীদের নিজেদের মোবাইলে একটি অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে। সেখানে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। তারপর নেট ব্যাঙ্কিংয়ের সঙ্গে যুক্ত করতে হবে। এমনকী ইউপিআই কোড ব্যবহার করেও রিচার্জ করতে পারবেন যাত্রীরা। নির্দিষ্ট অ্যাপ থেকে কিউআর কোড জেনারেট করতে হবে। আর তা মেট্রোর গেটে স্ক্যান করলেই খুলে যাবে মেট্রোর দরজা। লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট কাটতে হবে না। এতে যাত্রীদের সময় বাঁচবে। ভিড় এড়ানো যাবে।

এবার আরপিএফ নজরদারি করবে যাত্রীদের উপর। কোনও যাত্রী মাস্ক না পরে মেট্রোয় ওঠার চেষ্টা করলে সঙ্গে সঙ্গে পাকড়াও করা হবে। কারণ মেট্রো কর্তৃপক্ষের কাছে একাধিক অভিযোগ জমা পড়েছে। যেখানে মাস্কের ব্যবহার নিয়ে প্রশ্ন তুলে দেওয়া হয়েছে। এখনও করোনাভাইরাস গোটা দেশ থেকে যায়নি। তাহলে কেন মাস্ক ছাড়া সফর করা হচ্ছে?‌ এই প্রশ্ন তোলা হয়েছে।

বন্ধ করুন