বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > আট তলার কার্নিশে দাঁড়িয়ে হাত নাড়ছেন রোগী, নিউরো সায়েন্সে হুলস্থুল কাণ্ড
মল্লিকবাজারের ইনস্টিটিউট অফ নিউরো সায়েন্সের কার্নিশে এক রোগী

আট তলার কার্নিশে দাঁড়িয়ে হাত নাড়ছেন রোগী, নিউরো সায়েন্সে হুলস্থুল কাণ্ড

  • হাসপাতাল থেকে খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছন দমকল কর্মীরা। হাইড্রলিক ল্যাডারের সাহায্যে ওই রোগীকে নামিয়ে আনার চেষ্টা চলছে। নানা ভাল কথা তাকে বলা হচ্ছে। কিন্তু এই কাজে বিস্তর ঝুঁকি পোহাতে হচ্ছে দংকল কর্মীদের। কীভাবে হাসপাতালের জানালা দিয়ে রোগী কার্নিশে বেরিয়ে এলেন?‌ তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আজ, শনিবার সকালে মল্লিকবাজারের ইনস্টিটিউট অফ নিউরো সায়েন্সের কার্নিশে এক রোগী উঠে পড়েন। এই দৃশ্য দেখে হাসপাতালের নীচে ভিড় জমে যায়। জানলা দিয়ে বেরিয়ে ৮ তলার কার্নিশে চলে যান ওই রোগী। এমনকী নীচের দিকে তাকিয়ে তাঁকে হাত নাড়তেও দেখা যায়। তবে এই খবর চাউর হতে বেশি সময় লাগেনি। ঘটনাস্থলে যান দমকল কর্মীরা। ওই রোগীকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। হাইড্রলিক ল্যাডারের সাহায্যে ওই রোগীকে নামিয়ে আনার চেষ্টা চলছে।

ঠিক কী ঘটেছে মল্লিকবাজারে? হাসপাতাল সূত্রে খবর,‌ মল্লিকবাজারে ইনস্টিটিউট অফ নিউরো সায়েন্সের কার্নিশে জানালা দিয়ে চলে যান এক রোগী। হাসপাতালের আট তলা থেকে নীচে পথচারীদের হাত নাড়তে থাকেন ওই রোগী। এই দৃশ্য দেখে সকলের চোখ কপালে উঠে যায়। হাসপাতাল থেকে খবর দেওয়া হয় দমকল এবং পুলিশে। উদ্ধার করার চেষ্টা করা হচ্ছে। উদ্ধার করা যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

কেন এমন কাণ্ড ঘটালেন রোগী?‌ সূত্রের খবর, স্নায়ুরোগে আক্রান্ত ওই ব্যক্তি আত্মহত্যা করবেন বলে হুমকি দিচ্ছিলেন কয়েকদিন ধরে। বিষয়টি কেউ তেমন পাত্তা দেননি। এবার সে ঘুরে দেখেন জানালা দিয়ে কার্নিশে যাওয়া যায়। আর তার পর এটাই হবে আত্মহত্যার সুবিধাজনক জায়গা। সেটা বুঝে ফেলার পর জানালা দিয়ে ওই রোগী আত্মহত্যা করতে কার্নিশে চলে আসে। তবে হাসপাতালের তৎপরতায় তা যে সম্ভব হবে না সেটা বুঝতে পারেননি।

তারপর ঠিক কী হল?‌ হাসপাতাল থেকে খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছন দমকল কর্মীরা। হাইড্রলিক ল্যাডারের সাহায্যে ওই রোগীকে নামিয়ে আনার চেষ্টা চলছে। নানা ভাল কথা তাকে বলা হচ্ছে। কিন্তু এই কাজে বিস্তর ঝুঁকি পোহাতে হচ্ছে দংকল কর্মীদের। কীভাবে হাসপাতালের জানালা দিয়ে রোগী কার্নিশে বেরিয়ে এলেন?‌ তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

বন্ধ করুন