বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'সরকারের পক্ষে একা সচেতনতা বাড়ানো সম্ভব নয়', করোনার বাড়বাড়ন্তে মত দিলীপের
দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি। (PTI)
দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি। (PTI)

'সরকারের পক্ষে একা সচেতনতা বাড়ানো সম্ভব নয়', করোনার বাড়বাড়ন্তে মত দিলীপের

  • দিলীপ বলেন, 'দুর্গাপুজোর সময় এরকমই হয়েছিল।'

রাজ্যে চোখ রাঙাচ্ছে ওমিক্রন। ইতিমধ্যেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩,৫০০ ছুঁইছুঁই। তাতেও পরিস্থিতিতে সংক্রমণ আরও ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন চিকিৎসকরা। এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এই পরিস্থিতির মোকাবিলায় সাধারণ মানুষের আরও সচেতন হওয়া প্রয়োজন বলে মনে করছেন দিলীপ ঘোষ।

সাধারণত সবসময় বিভিন্ন ইস্যুতে রাজ্য সরকারকে নিশানা করতেই দেখা যায় বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। তবে মানুষের সচেতনতা নিয়ে রাজ্য সরকারকে আক্রমণ না করে উল্টে একপ্রকার রাজ্য সরকারের পাশেই দাঁড়ালেন দিলীপ ঘোষ। সচেতনতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'সরকারের কাজ নয় এটা। সম্ভবও নয় করা। যদি আমরা বিধিনিষেধ না মানি, তাহলে সত্যি সত্যি বিপদ আছে।' তিনি মনে করেন, পরিস্থিতি যাতে হাতের বাইরে না চলে যায়, তার জন্য আরও কড়াকড়ি করা প্রয়োজন।

শনিবার সকালে ইকো পার্কে প্রাতঃভ্রমণে গিয়ে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি বলেন, 'ওমিক্রন প্রতিদিনই চিন্তা বাড়াচ্ছে। প্রার্থনা করি যাতে নতুন বছরে মহামারী মুক্ত হয় পৃথিবী।' অন্যদিকে বর্ষবরণে মানুষের ঢল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'গতকাল মানুষকে ঘুরে বেড়াতে দেখা গিয়েছে। দুর্গাপুজোর সময় এরকমই হয়েছিল। এ নিয়ে সাধারণ মানুষকে আরও সতর্ক হওয়া প্রয়োজন। তা না হলে বিপদ আছে।'

প্রসঙ্গত বড়দিনে শহরের রাস্তায় মানুষের ঢল নেমেছিল। তারপর থেকেই ঊর্ধ্বমুখী রয়েছে করোনার গ্রাফ। আর তারই মধ্যে বেড়েছে ওমিক্রনের সংক্রমণ। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে ১৭ জনের শরীরে থাবা বসিয়েছে ওমিক্রন। সেই সংখ্যাটা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা চিকিৎসকদের।

বন্ধ করুন