বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > মুঙ্গের থেকে আগ্নেয়াস্ত্র কেনেন অমিত আগরওয়াল, লুকিয়ে রেখেছিলেন কলকাতার ফ্ল্যাটে
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

মুঙ্গের থেকে আগ্নেয়াস্ত্র কেনেন অমিত আগরওয়াল, লুকিয়ে রেখেছিলেন কলকাতার ফ্ল্যাটে

  • অমিত আগরওয়ালের রেখে যাওয়া ৬৭ পাতার সুইসাইড নোটের প্রতিটি অক্ষর খতিয়ে পড়ছেন গোয়েন্দারা। কিন্তু অস্ত্র তিনি কোথা থেকে পেয়েছেন তার কোনও উল্লেখ নেই সেই নোটে।

ফুলবাগান হত্যাকাণ্ডে পুলিশের হাতে এল আরও তথ্য। পুলিশসূত্রের খবর, বিহারের মুঙ্গের থেকে খুনে ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্রটি কিনেছিলেন অমিত আগরওয়াল। লকডাউনের আগে সেই অস্ত্র কিনে শ্বশুরবাড়ির কাছেই স্ত্রীর নামে থাকা ফ্ল্যাটে রেখে যান তিনি। সেই আগ্নেয়াস্ত্র দিয়েই শাশুড়িকে খুন করে আত্মঘাতী হয়েছেন তিনি। 

অমিত আগরওয়ালের রেখে যাওয়া ৬৭ পাতার সুইসাইড নোটের প্রতিটি অক্ষর খতিয়ে পড়ছেন গোয়েন্দারা। কিন্তু অস্ত্র তিনি কোথা থেকে পেয়েছেন তার কোনও উল্লেখ নেই সেই নোটে। তাই আগ্নেয়াস্ত্রের উৎস খুঁজতে মোবাইলের টাওয়ার লোকেশন সংগ্রহ শুরু করেন গোয়েন্দারা। তাতেই মিলেছে হদিশ। জানা গিয়েছে বিহারের মুঙ্গের থেকে অস্ত্রটি কেনেন অমিত। 

টাওয়ার লোকেশন অনুসারে লকডাউনের আগে বিহারের মুঙ্গের – মুজাফ্ফরপুর প্রভৃতি এলাকায় গিয়েছিলেন তিনি। গিয়েছিলেন তামিলনাড়ুর বিভিন্ন এলাকায়। সুইসাইড নোটে তিনি লিখেছেন, ‘সুপারি কিলার খুঁজতে বিহারে গিয়েছিলেন তিনি।’ কিন্তু অস্ত্র কেনার ব্যাপারে কিছু লেখা নেই সেখানে। যদিও গোয়েন্দাদের ধারণা, বিহার থেকেই বন্দুকটি জোগাড় করেছেন তিনি। 

তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, অগ্নেয়াস্ত্রটি শ্বশুরবাড়ির কাছেই স্ত্রীর নামে থাকা একটি ফ্ল্যাটে রেখে দেন অমিত। গত জানুয়ারি থেকে মার্চের মধ্যে বেশ কয়েকবার ওই ফ্ল্যাটে গিয়েছিলেন অমিত। তাখনই কোনও সময় বন্দুকটি সেখানে রেখে আসেন তিনি। 

জানা গিয়েছে, গত সোমবার ওই ফ্ল্যাট থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ব্যাগে করে নিয়ে শ্বশুরবাড়ি যান অমিত। সেখানে শাশুড়িকে খুন করে তিনি আত্মঘাতী হন। 

 

বন্ধ করুন