বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিজেপির রাজ্য দফতরের সদর দরজায় সুকান্ত- শুভেন্দুর বিশাল ছবি, ঠাঁই পেলেন না দিলীপ
সুকান্ত মজুমদার ও শুভেন্দু অধিকারীর বিশাল ছবি  (নিজস্ব চিত্র)
সুকান্ত মজুমদার ও শুভেন্দু অধিকারীর বিশাল ছবি  (নিজস্ব চিত্র)

বিজেপির রাজ্য দফতরের সদর দরজায় সুকান্ত- শুভেন্দুর বিশাল ছবি, ঠাঁই পেলেন না দিলীপ

  • তাৎপর্যপূর্ণভাবে দলের নতুন জেলা সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের পাশেই যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়ে টাঙানো হয়েছে মমতা মন্ত্রিসভার প্রাক্তন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর ছবি।

তবে কী রাজ্য বিজেপিতে আরও কোণঠাসা করা হচ্ছে দিলীপ ঘোষকে? সেই জায়গায় ক্রমেই পাকাপাকি জায়গা পাচ্ছেন দলের নয়া রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার ও বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী? দলের রাজ্য দফতরের সামনে টাঙানো হল বিশাল আকৃতির হোর্ডিং। সেই হোর্ডিংয়ে কোথাও বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের ছবি নেই। একেবারে সদর দরজায় টাঙানো হল সুকান্ত- শুভেন্দুর ছবি। অন্যদিকে সদর দরজার অপর দিকে একই উচ্চতায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডার ছবি টাঙানো হয়েছে। দরজার একদিকে বিজেপির কেন্দ্রীয় শীর্ষনেতার ছবি। অন্যদিকে রাজ্যের শীর্ষনেতার ছবি। তবে তাৎপর্যপূর্ণভাবে দলের নতুন জেলা সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের পাশেই যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়ে টাঙানো হয়েছে মমতা মন্ত্রিসভার প্রাক্তন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর ছবি। অর্থ্যাৎ দলের কেন্দ্রীয় স্তর থেকে শুভেন্দুকে যে যথেষ্ট গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে সেটাও এই হোর্ডিং টাঙানোর মধ্যেও কার্যত পরিষ্কার বার্তা দেওয়া হয়েছে।

তবে একটা সময় বঙ্গ বিজেপির যে কোনও অনুষ্ঠানেই থাকত দিলীপ ঘোষের ছবি। দলের বিভিন্ন কার্যালয়ে ঢোকার মুখেও দিলীপ ঘোষের ছবি থাকত। এবারের ভোটেও দলের রাজ্য সভাপতি হিসাবে দিলীপ ঘোষের উপর গুরুদায়িত্ব ছিল। কিন্তু বাস্তবে দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে বাংলায় দল কতটা এগিয়ে যেতে পেরেছে তা তর্কসাপেক্ষ। তবে রাজ্য সভাপতির পদ থেকে দিলীপ ঘোষকে সরিয়ে দেওয়ার পর তাঁর ক্ষমতাবলয় যে আরও ক্ষয়িষ্ণু হয়ে যাচ্ছে তা ক্রমেই পরিষ্কার হচ্ছে।
 

বন্ধ করুন