বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নিজাম প্যালেসে হামলায় খিদিরপুর ও কড়েয়া থেকে গ্রেফতার ৪
সোমবার নিজাম প্যালেসে তৃণমূলিদের ইঁটবৃষ্টির মোকাবিলা করছেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর এক জওয়ান।
সোমবার নিজাম প্যালেসে তৃণমূলিদের ইঁটবৃষ্টির মোকাবিলা করছেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর এক জওয়ান।

নিজাম প্যালেসে হামলায় খিদিরপুর ও কড়েয়া থেকে গ্রেফতার ৪

  • পুলিশের দাবি, সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে বৃহস্পতিবার খিদিরপুর থেকে তিন জনকে ও কড়েয়া থেকে ১ জনকে গ্রেফতার করেছে তারা।

নারদকাণ্ডে জেলবন্দি ৪ নেতা-মন্ত্রীর জামিনে অন্যতম কাঁটা হয়ে উঠেছে সোমবার নিজাম প্যালেসের সামনের বিক্ষোভ। হিংসাত্মক ওই বিক্ষোভকে হাতিয়ার করে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে সিবিআই। এমনকী মামলাটি রাজ্যের বাইরে স্থানান্তরিত করার আবেদন জানিয়েছে তারা। ওদিকে ৩ দিন কাটতে চললেও এখনও জামিন পাননি ৪ অভিযুক্ত নেতা-মন্ত্রী। চাপের মুখে অবশেষে সোমবারের হিংসার ঘটনায় ৪ জনকে গ্রেফতার করল কলকাতা পুলিশ। এদিন তাঁদের ব্যাঙ্কশাল আদালতে পেশ করা হয়। 

সোমবার হাইকোর্টে ৪ অভিযুক্ত নেতা-মন্ত্রীর জামিন খারিজের পর নিজাম প্যালেসের সামনে হিংসার ঘটনায় একটি FIR দায়ের করে শেক্সপিয়র সরণির থানার পুলিশ। তাতে ১৪৭, ১৪৮ ও বিপর্যয় মোকাবিলা আইনের ধারায় অজ্ঞাতপরিচয়দের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়। পুলিশের দাবি, সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে বৃহস্পতিবার খিদিরপুর থেকে তিন জনকে ও কড়েয়া থেকে ১ জনকে গ্রেফতার করেছে তারা। বৃহস্পতিবার তাঁদের ব্যাঙ্কশাল আদালতে পেশ করে হেফাজতে নেওয়ার আবেদন চেয়েছেন তদন্তকারীরা। 

যদিও আইনজ্ঞদের দাবি, নিজাম প্যালেসে তৃণমূলি দুষ্কৃতীদের তাণ্ডবের জেরেই যে চার নেতা-মন্ত্রীর জামিনের বিষয়টি জটিল হয়ে উঠেছে তা ক্রমশ স্পষ্ট হচ্ছে। বুধবার মামলার শুনানিতে হামলার কথা উল্লেখ করে অভিযোগ জানিয়েছে সিবিআই। তাদের দাবি, আদালতের নির্দেশে চলা তদন্তে জেরে সিবিআই দফতরে হামলা হয়েছে। তাই নিরাপত্তার ব্যবস্থা করুক আদালত। বিষয়টি ফের আদালতে উঠলে বিচারপতিরা জানতে চাইতে পারেন, ঘটনার পর এতদিন কাটলেও কী পদক্ষেপ করেছে পুলিশ? কোনও হামলাকারীকে কি গ্রেফতার করা হয়েছে? গ্রেফতারি দেখাতে না পারলে হামলায় সরকারি মদত রয়েছে বলে অভিযোগ করতে পারে সিবিআই। তাই ৪ জনকে গ্রেফতার করে সেই দরজা বন্ধ করে রাখল রাজ্য সরকার। 

 

বন্ধ করুন