বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Fake RTPCR: ভুয়ো ওয়েবসাইট বানিয়ে কোভিডের জাল আরটিপিসিআর রিপোর্ট তৈরির অভিযোগ, ধৃত যুবক
গ্রেফতার যুবক। প্রতীকী ছবি

Fake RTPCR: ভুয়ো ওয়েবসাইট বানিয়ে কোভিডের জাল আরটিপিসিআর রিপোর্ট তৈরির অভিযোগ, ধৃত যুবক

  • পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, যে ল্যাবের নামে ভুয়ো রিপোর্ট বানানো হচ্ছে সেই ল্যাবটি চিনার পার্কে অবস্থিত। ল্যাবের মালিক দিব্যঞ্জন চক্রবর্তী বিষয়টি জানতে পেরে বিধানগর সাইবার থানায় সম্প্রতি অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। 

অনলাইনে লেনদেন যত বাড়ছে ততই বাড়ছে সাইবার প্রতারণা। মানুষকে প্রতারণার জন্য নিত্য নতুন পন্থা অবলম্বন করছে প্রতারকরা। এবার কোভিডের ভুয়ো আরটিপিসিআর রিপোর্ট তৈরি করার অভিযোগ উঠল। এই অভিযোগে পুলিশ ১ যুবককে গ্রেফতার করেছে। ধৃতের নাম প্রিয়ম মণ্ডল। দক্ষিণ ২৪ পরগনার আমতলা থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ। ওই একটি ল্যাবের নামে ভুয়ো ওয়েবসাইট বানিয়ে জাল রিপোর্ট তৈরি করত বলে অভিযোগ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, যে ল্যাবের নামে ভুয়ো রিপোর্ট বানানো হচ্ছে সেই ল্যাবটি চিনার পার্কে অবস্থিত। ল্যাবের মালিক দিব্যঞ্জন চক্রবর্তী বিষয়টি জানতে পেরে বিধানগর সাইবার থানায় সম্প্রতি অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। তার অভিযোগ ছিল, একটি ভুয়ো ওয়েবসাইট বানানো হয়েছে তাতে ল্যাবের নামই শুধু নয়, তাদের লোগোও ব্যবহার করা হচ্ছে। সেখান থেকে আরটিপিসিআরের ভুয়ো রিপোর্ট দেওয়া হচ্ছে। যাদের এই সমস্ত রিপোর্ট দেওয়া হয়েছে তারা কেউই ল্যাব থেকে টেস্ট করাননি বলে তার অভিযোগ। এই অভিযোগ পাওয়ার পরেই তদন্ত নামে বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থাকার পুলিশ।

ঘটনার তদন্ত নেমে বিষ্ণুপুর থানা এলাকার আমতলা থেকে ওই যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পেরেছে, শুধু যে ভুয়ো রিপোর্ট দেওয়া হতো তাই নয়, এমনকি রিপোর্টে চিকিৎসকদের যে স্বাক্ষর থাকত তাও জাল করা হত। ধৃতের কাছ থেকে বেশ কিছু ভুয়ো রিপোর্ট এবং মোবাইল উদ্ধার করে পুলিশ। ধৃতকে আজ বিধাননগর আদালতে তোলা হয়। তার পুলিশ হেফাজতের জন্য আবেদন জানানো হয়। পুলিশের অনুমান, এই চক্রের সঙ্গে আরও অনেকে জড়িয়ে থাকতে পারে। তাই দিয়ে ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদে প্রয়োজন রয়েছে।

বন্ধ করুন