বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ২ সপ্তাহ জেরা করেও কোনও প্রমাণ পেশ করতে পারল না পুলিশ, হাফিজুলের জেল হেফাজত
মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির চত্বরে ঢুকে পড়েছিল হাফিজুল মোল্লা।

২ সপ্তাহ জেরা করেও কোনও প্রমাণ পেশ করতে পারল না পুলিশ, হাফিজুলের জেল হেফাজত

  • গত ৩ জুলাই সকালে মুখ্যমন্ত্রীর কালীঘাটের বাড়ি থেকে গ্রেফতার হয় এক অজ্ঞাতপরিচয় যুবক। জানা যায়, হাফিজুল মোল্লা নামে ওই যুবক হাসনাবাদের বাসিন্দা। ২ দিন পর পুলিশের তরফে জানানো হয় গ্রেফতারির সময় যুবকের কাছ থেকে উদ্ধার হয় একটি লোহার রড।

মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে অনুপ্রবেশের অভিযোগে গ্রেফতার হাফিজুল মোল্লাকে ২ সপ্তাহ ধরে জেরা করেও তেমন কোনও তথ্য আদালতে পেশ করতে পারল না পুলিশ। সোমবার পুলিশ হেফাজতের মেয়াদ শেষে তাকে আদালতে পেশ করে জেল হেফাজতের আবেদন করেন তদন্তকারীরা। এর পর ১ অগাস্ট পর্যন্ত অভিযুক্তকে জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেন বিচারক।

গত ৩ জুলাই সকালে মুখ্যমন্ত্রীর কালীঘাটের বাড়ি থেকে গ্রেফতার হয় এক অজ্ঞাতপরিচয় যুবক। জানা যায়, হাফিজুল মোল্লা নামে ওই যুবক হাসনাবাদের বাসিন্দা। ২ দিন পর পুলিশের তরফে জানানো হয় গ্রেফতারির সময় যুবকের কাছ থেকে উদ্ধার হয় একটি লোহার রড। এর পর আদি গঙ্গা দিয়ে অনেক জল গড়িয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তা আরও কঠোর করতে করা হয়েছে একাধিক পদক্ষেপ। মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তা আধিকারিকের পদ থেকে বিবেক সহায়কে সরিয়ে আনা হয়েছে মনোজ ভার্মাকে। মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে ও নবান্নে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশকর্মীদের মোবাইল ফোন ব্যবহার নিষিদ্ধ হয়েছে। কিন্তু হাফিজুলের বিরুদ্ধে তেমন কোনও তথ্য উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। যদিও তার বিরুদ্ধে অপরাধমূলক ষড়যন্ত্রের ধারা প্রয়োগ করা হয়েছে।

সোমবার আদালতে পেশ করে হাফিজুলের জেল হেফাজত দাবি করে পুলিশ। সঙ্গে হাফিজুলকে তারা জেলে গিয়ে জেরা করতে চায় বলে আদালতকে জানায়। জানায়, সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজের সঙ্গে হাফিজুলের হাঁটাচলা মিলিয়ে দেখে তারা নিশ্চিত হতে হায় অনুপ্রবেশকারী ওই যুবকই কি না। সঙ্গে আদালতকে তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, সম্প্রতি রাজস্থান পুলিশের তরফে হাফিজুলের খোঁজ করা হচ্ছিল। সম্ভবত সেখানে কোনও দুষ্কর্মে যুক্ত সে। এর পর ১ অগাস্ট পর্যন্ত অভিযুক্তকে জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।

 

বন্ধ করুন