বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > কেউ তথ্য জানার আইনে আবেদন করলেই বাড়িতে পুলিশ পাঠানো হয়, চাঞ্চল্যকর দাবি ধনখড়ের
পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়
পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

কেউ তথ্য জানার আইনে আবেদন করলেই বাড়িতে পুলিশ পাঠানো হয়, চাঞ্চল্যকর দাবি ধনখড়ের

  • রাজ্যপাল আরও লেখেন, ‘তথ্য দেওয়া হয় না কেন? এত লুকোনোর কী আছে? যাঁরা তথ্য দিচ্ছেন না তাদের চিহ্নিত করুন। এই অস্পষ্টতা দুর্নীতির জন্ম দেবে।

ফের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের। তথ্য জানার অধিকার আইনে পশ্চিমবঙ্গের কোনও নাগরিক আবেদন করলে তার বাড়িতে পুলিশ পাঠিয়ে ধমকানো হয় বলে দাবি করেন রাজ্যপাল। টুইটে তিনি লেখেন, দুর্নীতি রোধে তথ্য প্রকাশ সব থেকে জরুরি।

এদিনও সরাসরি মুখ্যমন্ত্রী আক্রমণ করে রাজ্যপাল লেখেন, ‘রাজ্যপালকে তথ্য না দেওয়ার ব্যর্থতা  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমলে তথ্যের অধিকারের করুণ অবস্থার পরিচায়ক। মুখ্য তথ্য কমিশনারকে ডেকে আগেই সতর্ক করেছি। তথ্য চেয়ে আবেদন করলেই এ রাজ্যে বাড়িতে পুলিশ যায়। ভয় দেখানো হয়। তাই এত কম আবেদন জমা হয়। দুর্নীতি রোধে তথ্য প্রকাশ সবচেয়ে জরুরি।‘

রাজ্যপাল আরও লেখেন, ‘তথ্য দেওয়া হয় না কেন? এত লুকোনোর কী আছে? যাঁরা তথ্য দিচ্ছেন না তাদের চিহ্নিত করুন। এই অস্পষ্টতা দুর্নীতির জন্ম দেবে। বাক্সের ভিতর কঙ্কালের সংখ্যা আরও বাড়বে।‘

করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও রাজ্য সরকার ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি তাঁর আক্রমণ বজায় রেখেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। শনিবার পশ্চিমবঙ্গের শিল্প সম্মেলনের কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। লেখেন, সম্মেলনে প্রচুর মউ সাক্ষর হয়েছে, কিন্তু বিনিয়োগ হয়েছে কই?

 

বন্ধ করুন