বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Newtown: নিউটাউনে প্রেমিকের ঘরে গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ! আত্মহত্যা নাকি খুন! তদন্তে পুলিশ
নিউটাউনে মহিলার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার। প্রতীকী ছবি।
নিউটাউনে মহিলার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার। প্রতীকী ছবি।

Newtown: নিউটাউনে প্রেমিকের ঘরে গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ! আত্মহত্যা নাকি খুন! তদন্তে পুলিশ

  • পুলিশ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই মহিলার বিয়ে হয়েছে বেশ কয়েক বছর আগেই। তিনি উত্তর ২৪ পরগনার কামারগাতী এলাকার বাসিন্দা। তবে স্বামীর সঙ্গে তার মনোমালিন্যের জেরে তাদের মধ্যে সম্পর্ক তিক্ত হয়ে যায়।

নিউটাউনে মহিলার মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে রহস্য দানা বেঁধেছে। নিউটনের নতুন পুকুর এলাকায় একটি বন্ধ ঘর থেকে মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। মৃত মহিলার নাম অঞ্জলি মন্ডল (৩০)। এই ঘটনায় তদন্ত নেমেছে টেকনো সিটি থানার পুলিশ। স্থানীয়দের একাংশ এই ঘটনাকে আত্মহত্যা বলে দাবি করলেও তা অবশ্য মানতে রাজি নয় ওই মহিলার পরিবার। তাদের দাবি অঞ্জলিকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই মহিলার বিয়ে হয়েছে বেশ কয়েক বছর আগেই। তিনি উত্তর ২৪ পরগনার কামারগাতী এলাকার বাসিন্দা। তবে স্বামীর সঙ্গে তার মনোমালিন্যের জেরে তাদের মধ্যে সম্পর্ক তিক্ত হয়ে যায়। এরইমধ্যে গোকুল সর্দার নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন অঞ্জলি। তারপর থেকেই টেকনো সিটি থানা এলাকার নতুন পুকুরে ওই ব্যক্তির সঙ্গে তিনি থাকছিলেন। এদিন ওই মহিলার ঝুলন্ত দেহ নিয়ে প্রথমে গোকুল নিজেই বাড়ির মালিককে খবর দেন। তারা এসে দেখেন গলায় দড়ি দেওয়া অবস্থায় ঘরের ভিতরে ঝুলছে ওই মহিলার দেহ। পরে তারা পুলিশে খবর দেন। তাকে উদ্ধার করে বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনার তদন্তে নেমেছে টেকনো সিটি থানা পুলিশ। এরইমধ্যে পুলিশ তদন্তে নামতেই এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় গোকুল। তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। অঞ্জলির পরিবারের অভিযোগ, গোকুলই তাকে খুন করেছে। এখন সত্যি সত্যিই ওই মহিলাকে খুন করা হয়েছে নাকি তিনি আত্মহত্যা করেছেন তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। সেইসঙ্গে তার মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে পুলিশ মহিলার মৃত্যুর আসল কারণ জানতে পারবে।

বন্ধ করুন