বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Coronavirus: বাড়ছে করোনা, নবান্নের নির্দেশে মানুষকে সচেতন করতে প্রচারে নামল পুলিশ
করোনা নিয়ে প্রচার কলকাতা পুলিশের। ফাইল ছবি।

Coronavirus: বাড়ছে করোনা, নবান্নের নির্দেশে মানুষকে সচেতন করতে প্রচারে নামল পুলিশ

  • স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন বলছে, বর্তমানে রাজ্যে করোনা সংক্রমণের হার প্রায় ৩০০০ এর কাছাকাছি। নবান্নের তরফে নির্দেশ পাওয়ার পরে আজ রবিবাসরীয় সকালে কলকাতায় বিভিন্ন বাজারে করোনা নিয়ে মানুষকে সচেতন করতে রাস্তায় নামে পুলিশ। বেলেঘাটা থানা এলাকার রাসমণি বাজারে ভালোই ভিড় থাকে।

রাজ্যে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিভিন্ন সভায় এনিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে মানুষকে সতর্ক করেছিলেন। মাস্ক পরার পাশপাশি স্যানিটাইজার ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়েছিলেন। তা সত্ত্বেও অধিকাংশ মানুষই মাস্ক ছাড়াই পথে বের হচ্ছেন। হাতে গোনা কয়েকজনকে মাস্ক পরতে দেখা যাচ্ছে। চিকিৎসকদের মতে, সাধারণ মানুষের অবহেলার কারণেই রাজ্যে ফের বাড়ছে করোনা। এই পরিস্থিতিতে করোনা নিয়ে মানুষকে সতর্ক করার জন্য জেলা প্রশাসন এবং কমিশনারেটগুলিকে নির্দেশ দিল নবান্ন।

স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন বলছে, বর্তমানে রাজ্যে করোনা সংক্রমণের হার প্রায় ৩০০০ এর কাছাকাছি। নবান্নের নির্দেশ পাওয়ার পরে আজ রবিবাসরীয় সকালে কলকাতায় বিভিন্ন বাজারে করোনা নিয়ে মানুষকে সচেতন করতে রাস্তায় নামে পুলিশ। বেলেঘাটা থানা এলাকার রাসমণি বাজারে ভালোই ভিড় থাকে। এদিন পুলিশের তরফে মাইকে করে এই বাজারের ক্রেতা এবং বিক্রেতাদের সতর্ক করা হয়। মাস্ক এবং স্যানিটাইজার ব্যবহার করার অনুরোধ জানায় পুলিশ। বাজারে দেখা যায়, শুধু হাতেগোনা কয়েকজনের মুখেই মাস্ক রয়েছে। তাও আবার অনেকেই ঠিকমতো মাস্ক পড়েননি। পুলিশের প্রচারের পরে অনেকেই আবার পকেট থেকে মাস্ক বের করে পরে নেন।

পুলিশের তরফে এদিন ক্রেতা বিক্রেতাদের মাস্ক পরার পাশাপাশি সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্যও আবেদন জানানো হয়। পাশাপাশি বাড়ি গিয়ে সাবান দিয়ে হাত পা পরিষ্কার করার জন্য নাগরিকদের অনুরোধ করে পুলিশ। প্রসঙ্গত, ৩ মাস থমকে থাকার পর ফের গত মাস থেকে মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে শুরু করেছে করোনা। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মোট এটি করোনার চতুর্থ ঢেউ। এই পরিস্থিতিতে চিকিৎসকরা ও মানুষকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন।

বন্ধ করুন