বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > তৃণমূল বিধায়ক তাপস সাহা ও তাঁর আপ্ত সহায়ককে একসঙ্গে ডেকে পাঠাল দুর্নীতি দমন শাখা
তাপস সাহা। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে ফেসবুক)

তৃণমূল বিধায়ক তাপস সাহা ও তাঁর আপ্ত সহায়ককে একসঙ্গে ডেকে পাঠাল দুর্নীতি দমন শাখা

  • চাকরি দেওয়ার নাম করে তেহট্টের তৃণমূল বিধায়ক তাপস সাহার আপ্ত সহায়ক প্রবীর কয়াল লক্ষ লক্ষ টাকা তুলেছেন বলে অভিযোগ জমা পড়ে তেহট্ট থানায়। তদন্তে নেমে প্রবীর কয়াল ও তার ২ সহযোগীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

চাকরি দেওয়ার নাম করে টাকা তোলার অভিযোগে তেহট্টের বিধায়ক তাপস সাহা ও তাঁর আপ্ত সহায়ক প্রবীর কয়ালকে তলব করল রাজ্য পুলিশের দুর্নীদমন শাখা। মঙ্গলবার তাঁদের ভবানীভবনে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। গোয়েন্দাসূত্রে খবর, দুজনকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করার পরিকল্পনা রয়েছে।

চাকরি দেওয়ার নাম করে তেহট্টের তৃণমূল বিধায়ক তাপস সাহার আপ্ত সহায়ক প্রবীর কয়াল লক্ষ লক্ষ টাকা তুলেছেন বলে অভিযোগ জমা পড়ে তেহট্ট থানায়। তদন্তে নেমে প্রবীর কয়াল ও তার ২ সহযোগীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এর পর জামিনও পেয়ে যায় তারা। যদিও বিধায়কের বিরুদ্ধে পুলিশ কেন পদক্ষেপ করছে না সেই অভিযোগে সরব হয় বিরোধীরা। এরই মধ্যে বিধায়ক ও তাঁর আপ্ত সহায়ককে একসঙ্গে ডেকে পাঠাল দুর্নীতি দমন শাখা।

তাপসবাবুর দাবি, প্রবীর তাঁর ঘনিষ্ঠ তবে আপ্ত সহায়ক নয়। সে কারও কাছ থেকে টাকা নিয়েছে বলে জানা নেই বলেও দাবি করেছেন বিধায়ক। এই ঘটনার তদন্তে আগামী মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ভবানীভবনে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে ২ জনকে।

বিরোধীদের দাবি, বিধায়ককে বাঁচাতে তাঁর আপ্ত সহায়ককে বলির পাঁঠা করার চেষ্টায় রয়েছে তৃণমূল। পুলিশকে তেমনই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাই বিধায়কের বিরুদ্ধে সরাসরি অভিযোগ থাকলেও তাঁকে গ্রেফতার না করে গ্রেফতার করা হয়েছে আপ্তসহায়ককে।

 

বন্ধ করুন