বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কালীপুজোয় শব্দবাজি ধরতে অত্যাধুনিক যন্ত্র ব্যবহার করবে পুলিশ
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

কালীপুজোয় শব্দবাজি ধরতে অত্যাধুনিক যন্ত্র ব্যবহার করবে পুলিশ

  • পশ্চিমবঙ্গ দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের চেয়ারম্যান কল্যাণ রুদ্র বলেন, ‘এই যন্ত্রগুলি পুলিশকে ঠিক কোথায় বাজি ফাটছে তা সহজে বুঝতে সাহায্য করবে।

কালীপুজো-দীপাবলিসহ পশ্চিমবঙ্গে আসন্ন সমস্ত উৎসবে বাজি ফাটানো নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে সুপ্রিম কোর্ট। আর আদালতের নির্দেশ কার্যকর করতে এবার কোমর বেঁধে নামল দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ ও পুলিশ। সেজন্য রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় মোট ১০০০টি অত্যাধুনিক যন্ত্র বসাচ্ছে তারা। কোথাও বাজি ফাটলেই এই যন্ত্র তা জানিয়ে দেবে থানায়। কোথায় বাজি ফাটানো হয়েছে তাও এই যন্ত্রের সাহায্যে জানতে পারবেন পুলিশকর্মীরা।

কালীপুজোর আগে কলকাতা পুলিশকে ১০০০টি GPS বসানো মাইক্রোফোন দিয়েছে দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ। বিভিন্ন থানা এলাকায় ভাগ করে লাগানো হবে এই যন্ত্রগুলি।  কোথাও বাজি ফাটালেই পুলিশ আধিকারিকরা জানতে পারবেন নির্দিষ্ট সেই জায়গার নাম। সঙ্গে সঙ্গে অভিযান চালিয়ে ধরা যাবে আইনভঙ্গকারীদের। 

পশ্চিমবঙ্গ দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের চেয়ারম্যান কল্যাণ রুদ্র বলেন, ‘এই যন্ত্রগুলি পুলিশকে ঠিক কোথায় বাজি ফাটছে তা সহজে বুঝতে সাহায্য করবে। যার ফলে দ্রুত পদক্ষেপ করতে পারবেন পুলিশকর্মীরা।’

অত্যাধুনিক এই যন্ত্র কবে কোথায় কত জোরে বাজি ফাটানো হয়েছে সব বলে দেবে। ওই যন্ত্র থেকেই প্রিন্টআউট মিলবে যাবতীয় তথ্যের। যা পরে আদালতেও পেশ করা যাবে।

কল্যাণবাবু বলেন, পুলিশকর্মীদের আমরা এই যন্ত্র ব্যবহারের প্রশিক্ষণ দিয়েছি। তার পরও কোনও সমস্যা হলে দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের কর্মীরা তাঁদের সাহায্য করবেন। শব্দবাজি ছাড়াও লাউডস্পিকার ও সাউন্ড বক্সের আওয়াজ চিহ্নিত করা যাবে। 

 

বন্ধ করুন